অ’গ্রিম ভা’ড়ার জ’ন্য ৫ ছা’ত্রীকে আ’টকে রা’খল মে’স মা’লিক, উ’দ্ধার করল পু’লিশ….

দুই মা’সের অ’গ্রিম ভা’ড়ার জ’ন্য আ’টকে রাখা ব’গুড়া স’রকারি আ’জিজুল হক ক’লেজের পাঁ’চ ছাত্রীকে উ’দ্ধার করেছে পুলিশ।

কা’মারগা’ড়ী এ’লাকায় শি’উলী ছা’ত্রীনি’বাসে এই ঘ’টনা ঘটে বলে ব’গুড়া স্টে’ডিয়াম ফাঁ’ড়ির এসআই জা’হাঙ্গীর আলম জানান।

অন্যদিকে, ক’রোনাভা’ইরাসেের ম’হামা’রীর মধ্যে ক’র্মহীন অ’বস্থায় অনেক বাড়ির মালিক ঘর মও’কুফ করেছেন।

ঠা’কুরগাঁ’ওয়ের এক মে’স মা’লিক তা’র দুটি মে’সের নি’বাসীদের আ’গামী ছয় মা’সের ভাড়া না নে’ওয়ার ঘো’ষণা দিয়েছেন।

অ’গ্রীম মে’স ভা’ড়া দিতে না পারায় ৫ ছাত্রীকে আ’টকে রাখে মেস মা’লিকখোঁ’জ নি’য়ে জা’না গেছে, বগুড়ার স’রকারি আজিজুল হক কলেজের প্রা’য় দ’শ হাজার ছাত্র’ছাত্রী হলে সি’ট না পেয়ে কলেজের পাশে কা’মারগা’ড়ী, জ’হুরুল নগর, পুরান ব’গুড়া, জা’মিলন’গরে প্রায় পাঁ’চশ ছা’ত্রাবাস ও ছাত্রী’নিবাসে থেকে লে’খাপড়া করেন।

এ’সব ছাত্র-ছাত্রীরা বে’শিরভা’গই অন্য জে’লা থেকে এসে লে’খাপড়া ক’রেন।

শিউলী ছাত্রী’নিবাসের বা’সিন্দা ছা’ত্রী বী’থি সাংবাদিকদের ব’লেন, দু’পুরে শি’উলী ছা’ত্রীনি’বাসের পাঁ’চ ছাত্রী বা’ড়ি যা’ওয়ার জন্য ব’ই কাপড়-চোপড় বের করার সময় নি’বাসের ত’ত্ত্বাবধায়ক রেনু বে’গম আগাম দু’ই মাসের ভাড়া ছা’ড়া তাদের বের হতে বা’ধা দেন।

এ নিয়ে ছাত্রীরা তর্কে জড়িয়ে পড়েন নি’বাসের মালিক।“এ’ক পর্যা’য়ে ছাত্রীনিবাসের মালিক ছাত্রীদের ভেতরে রেখে মুল ফটকে তালা ঝু’লিয়ে দেয়।”“

এক পর্যায়ে ছাত্রী’নিবাসের মালিক ছাত্রীদের ভেতরে রেখে মুল ফটকে তালা ঝু’লিয়ে দেয়।

”এস’আই জা’হাঙ্গীর আলম জানান, খবরটি ছড়িয়ে পড়লে পুলিশ ও গ’ণমাধ্যমকর্মীরা ঘ’টনাস্থলে উ’পস্থিত হন।

এ সময় শ’তাধিক ব্যক্তি ও ছা’ত্রীনিবাসের মা’লিক এক হয়ে পুলিশকে বো’ঝানোর চে’ষ্টা করে।“এ সময় পুলিশ পাঁচ ছা’ত্রীকে তা’লাব’ন্ধ ঘর থেকে উ’দ্ধার করে। পরে ওই পাঁচ ছা’ত্রী বই, কাপড়-চোপড়সহ বাড়ির উদ্দেশে রওয়ানা দেন।”

এই ছা’ত্রীনি’বাসে প্রায় ৫০ জন ছাত্রী থাকেন বলে এস’আই জা’হাঙ্গীর জানান।শিউলী ছাত্র’নিবাসের তত্ত্বা’বধায়ক রেনু বেগম বলেন, “বাড়ির মালিক রমজান আ’লীর সঙ্গে কথা বলে অন্যান্য মা’লিকদের স’ঙ্গে নিয়ে তালা ঝু’লিয়েছিলাম।

”ছাত্রীনিবাসের এক মালিক মো. মাছুম বলেন, “আমরা ছাত্রীনিবাসের মালিকরা এক হয়ে সিদ্ধান্ত নিয়েছি আগাম দু’ই মাসের ভাড়া ছাড়া কাউকে বই কাপড়-চোপড় নিয়ে বাড়ি যেতে দেব না। তাই সবাই মিলে ভাড়া না দেওয়ায় তালাবন্ধ করা হয়।ওই ছাত্রীনিবাসের ছাত্রী বীথি আরও বলেন, “মে মাস পর্যন্ত ভাড়া পরিশোধ করা হয়েছে।

আগাম আরও দুই মাসের ভাড়া চায়। ক’রোনাভা’ইরাসেের সময় বিভিন্ন ছাত্র ও ছা’ত্রীনিবাসের মালিকরা জোট হয়ে এভাবে নি’র্যাতন করছে।

ভাড়াও তারা বেশি নেয়।”জহুরুল’নগরের অন্য একটি ছাত্রীনিবাসের মালিক আসলাম আলী বলেন, এটা অমানবিক।

আজিজুল হক কলেজের আশেপাশে প্রায় ৫শটি ছাত্র ও ছাত্রী’নিবাসের ১০ হা’জারের মতো শিক্ষার্থী থাকেন।

 

ক’রোনাভা’ইরাসেের সময় বে’শিরভাগ মা’লিক এর’কম করছে।

Facebook Comments
custom_html_banner1

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *