আম্ফানের আ’ঘাতে একেবারে ধ্বং’স হয়ে গেছে প’শ্চিমবঙ্গের যেসব এ’লাকা।

ব’ঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট ঘূর্ণিঝড় আম্ফান কলকাতাসহ গাঙ্গেয় পশ্চিমবঙ্গে বুধবার (২০ মে) বিকেল থেকে সাত-আট ঘণ্টা ধরে ধ্বং’সলীলা চা’লানোর পর এখন কিছুটা শান্ত হয়েছে।গতরাতে মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জী বলেন, ঘূর্ণিঝড়ে ১০-১২ জনের মৃ’ত্যুর খবর পাওয়া গেছে।

এ’দের ম’ধ্যে চারজন কলকাতায় মা’রা গেছেন।এদের মধ্যে দুইজন দেয়াল চা’পা পড়ে এবং দুজন বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে মা’রা গেছে। বাকিরা বিভিন্ন জে’লায় মা’রা গেছে। তিনি আরও বলেন, দক্ষিণ ২৪ পরগণা জে’লায় ঘূর্ণিঝড়টি প্রথম আ’ঘাত হানে।এই জে’লা এবং উত্তর ২৪ পরগণায় ব্যাপক ক্ষয়ক্ষ’তি হয়েছে বলে জানা গেছে। তবে তার পরিমাণ কত সেটি এখনো নিশ্চিত হওয়া যায়নি।ক্ষয়ক্ষ’তির পুরো চিত্র পেতে বেশ কয়েক দিন লেগে যেতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

সু’ন্দরবন এ’বং লাগোয়া এলাকা যেমন পাথরপ্রতিমা, ফুলতলি, নামখানা, বাসন্তি- এসব এলাকায় ব্যাপক ক্ষয়ক্ষ’তি হয়েছে।মুখ্যমন্ত্রী জানান, দক্ষিণ ২৪ পরগনা এবং উত্তর ২৪ পরগনা একেবারে ধ্বং’স হয়ে গেছে।

উ’পকূলবর্তী এলাকা এবং কলকাতার বহু এলাকা এখনো বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন অবস্থায় রয়েছে। সমস্যা দেখা দিয়েছে মোবাইল নেটওয়ার্ক এবং ইন্টারনেট সংযোগেও।বিভিন্ন এলাকায় ঝড়ের কবলে পড়ে গাছ-পালা, ট্রাফিক সিগন্যালের পোস্ট ভে’ঙ্গে পড়ার খবর মিলেছে। এছাড়া কাঁ’চা বাড়িঘর ভে’ঙ্গে পড়েছে।

Facebook Comments
custom_html_banner1

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *