ই’তালির সব কারাগারে হবে মসজিদ, ও ইসলামের শি’ক্ষা দেয়া হবে…..

সব নাগরিকের ধর্মীয় স্বাধীনতার নীতি রয়েছে ই’তালির সংবিধানে।

এমনকি দেশটির সংবিধানে সব বন্দির জন্য সঠিকভাবে ধ’র্মপালনের অধিকার দিয়েছে।

গত মাসে শেষ সপ্তাহে দেশটির মসজিদ ও প্রা’র্থনাকক্ষগুলো খুলে দেওয়ার ব্যাপার ইতালির প্র’ধানমন্ত্রী জিউসেপ কোঁতে ও ইউসিওআইআইয়ের প্রতিনিধি দলের মধ্যে একটি চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়।

সেই চুক্তির আলোকেই নতুন সমঝোতা চুক্তি স্বাক্ষরিত হলো।চুক্তি অনুযায়ী ইউসিওআইআই ইতালিতে ইমামের দা’য়িত্ব পালনকারীদের একটি তালিকা দেবে,

যারা সারা দেশের কারাগারের মুসলিম বন্দিদের ধর্মীয় দিকনির্দেশনা দেবে এবং তাদের নামাজের ইমামতি করবে। ক’র্মক্ষেত্র নির্বাচনে ইমামদের মতামত নেওয়া হবে।

এটি মূলত পাঁচ বছর আগের একটি প্রজেক্টের সুফল, যার অধীনে ইতালির আটটি কারাগারে শুরু হয়েছিল।এদিকে ইতালির ব’ন্দিদের মধ্যে সাত হাজার ২০০ জন মুসলিম।

তাদের জন্য ৯৭ জন ধর্মীয় শি’ক্ষক রয়েছেন। বন্দিদের মধ্যে ৪৪ জন জেলেই ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেছেন।

বর্তমানে ই’তালির মাত্র কয়েকটি জেলে মুসলিম বন্দিদের প্রার্থনার জায়গা রয়েছে, যা প্রয়োজনের তুলনায় খুবই কম।

ইতালির বিচার ম’ন্ত্রণালয়ের এক বিবৃতিতে বলা হয়, ইতালির কা’রাগারে বিভিন্ন ধ’র্মাবলম্বী মানুষের সংখ্যা বৃ’দ্ধি পাওয়ায় সবার জন্য সঠিকভাবে

ধর্মপালনের সুযোগ করে দেওয়ার প্রয়োজনীয়তা দেখা দিয়েছে।

Facebook Comments
custom_html_banner1

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *