ইবি ছাত্রলীগের সভাপতি পলাশের ব্যতিক্রমী কার্যক্রম

এজি লাভলু, স্টাফ রিপোর্টার

সারাবিশ্ব যখন করোনাভাইরাসের ভয়ালগ্রাসে তটস্থ, অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি যখন হুমকির মুখে, সাধারণ মানুষের জীবনমান যেখানে দারিদ্র্যসীমার নীচে, ঠিক তখনই দেশের এই ভয়াবহ পরিস্থিতিতে মানবতার ফেরিওয়ালা হিসেবে নিজ এলাকা কুড়িগ্রাম জেলার হতদরিদ্র মানুষদের পাশে দাঁড়িয়েছেন ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়, কুষ্টিয়া শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি মো: রবিউল ইসলাম পলাশ। নিজের জমানো টাকা আর অন্যের সাহায্য-সহযোগিতা নিয়ে গ্রামীণ খেটে খাওয়া মানুষদের সহযোগিতার লক্ষ্যে গঠন করেন করোনাভাইরাস মোকাবেলায় ‘জরুরী খাদ্য ও নিরাপত্তা সেল’। এই সেলের প্রধান লক্ষ্য হলো অভুক্তদের খাদ্য সহায়তা, জরুরী অবস্থায় কোনো মুমূর্ষু রোগীকে হাসপাতালে প্রেরণ, জনসচেতনতামূলক পোস্টার বিতরণ, জীবাণুনাশক স্প্রে প্রভৃতি কার্যক্রম সম্পন্ন করা। এ পর্যন্ত ২৫০টি পরিবারকে তিনদিনের নিত্য প্রয়োজনীয় খাদ্য সামগ্রী প্রদান করেন।

এ প্রসঙ্গে ছাত্রলীগ নেতা পলাশ বলেন, বঙ্গবন্ধুর আদর্শে অনুপ্রাণিত হয়ে দেশের এই দুর্যোগকালীন সময়ে সাধারণ মানুষদের সেবা করাই আমার একমাত্র ব্রত। আমার এই কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে।’

তাঁর এই কার্যক্রম দেশের ক্লান্তিলগ্নে হতদরিদ্রদের জন্য এক আর্শিবাদ। তাঁর কার্যক্রমের প্রশংসা করতে গিয়ে আবেগ আপ্লুত হয়ে কুড়িগ্রাম সদর উপজেলার ভোগডাঙ্গা ইউনিয়নের জগমনচরের বাসিন্দা ষাটোর্ধ্ব করিমন্নেছা বলেন, ‘পলাশ হামার সোনার ছওয়া। এই বিপদের দিনোত এমরা না থাকলে হামরা না খ্যায়া মরি গেলং হয়। আল্লাহ পলাশোক অনেক বড়ো করুক।’

এই কার্যক্রমকে অব্যাহত রাখতে রবিউল ইসলাম পলাশ সমাজের বিত্তবান লোকদের এগিয়ে আসার আহবান জানিয়েছেন।

পলাশকে সাহায্য পাঠানোর নম্বর: বিকাশ ০১৯৮-০৯৭৭২৯৪ (ব্যক্তিগত), রকেট- ০১৭২২৩৩৪৯১৪৭, নগদ- ০১৭২২৩৩৪৯১৪৭

Facebook Comments
custom_html_banner1

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *