1. ashrafali.sohankg@gmail.com : aasohan :
  2. alireza.kg2014@gmail.com : Ali Reza Sumon : Ali Reza Sumon
  3. hrbiplob2021@gmail.com : News Editor : News Editor
শনিবার, ০২ জুলাই ২০২২, ১১:৩০ অপরাহ্ন
শিরোনাম:-
জাতীয় স্লোগান হিসেবে ‘জয় বাংলা’ ব্যবহারের নির্দেশঃ হাইকোর্ট চিকিৎসকের ফেসবুক পোস্টে অজ্ঞাত রোগীর সন্ধান পেলো স্বজনরা পদ্মা সেতু উদ্বোধন আনন্দের জুয়ার কিশোরগঞ্জে তাড়াইলে আওয়ামীলীগের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে আনন্দ মিছিলের পরিবর্তে ত্রাণ বিতরণ কিশোরগঞ্জে বন্যা কবলিত এলাকায় ত্রাণ সামগ্রী নিয়ে ঢাকা বিভাগীয় কমিশনার দুর্যোগ মোকাবিলায় সরকার আগে থেকেই প্রস্তুত- মো.খলিলুর রহমান কিশোরগঞ্জে জাতীয় ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাম্পেইন হাওরের উন্নয়ন নিয়ে ঈর্ষান্বিত হইয়েন না- এমপি তৌফিক যোগ্য হাতেই সদর আওয়ামীলীগ কিশোরগঞ্জে অভিনব কায়দায় ব্যাংকে টাকা চুরি করতে গিয়ে এক ব্যক্তি আটক নিয়ন্ত্রণহীন গাড়ি ও জনসচেতনতার অভাবেই বেশিরভাগ সড়ক দূর্ঘটনা- পুলিশ সুপার কিশোরগঞ্জ

উলিপুরে র‌্যাব-১২’র অভিযান; তিনজনকে আটক করে থানায় সোপর্দ

রিপোর্টার:
  • সর্বশেষ আপডেট : রবিবার, ৭ জুন, ২০২০
  • ১০৩ সংবাদটি দেখা হয়েছে

এজি লাভলু, স্টাফ রিপোর্টার

গত ৪ জুন সিরাজগন্জ র‌্যাব-১২ এর একটি টিম মাদক বিরোধী অভিযান পরিচালনা করে। এসময় উলিপুর এমএসস্কুল এন্ড কলেজে প্রায় ঘন্টা খানেকের এই অভিযানে মাদক ছাড়াই ৩ জনকে আটকে সমর্থ হয়। পরে তাদের বিরুদ্ধে সরকারী কাজে বাধাদান এর অভিযোগ এনে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয় বলে জানা গেছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, ৪ জুন দুপুড় ২ টার পর উলিপুর এমএসস্কুল এন্ড কলেজে রেপিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়ন সিরাজগন্জ-১২ এর একটি টিম গোপন সূত্রের ভিত্তিতে সোর্স দ্বারা মাদক সিন্ডিকেট ধরার জাল বিছিয়ে ছদ্মবেশে অপেক্ষা করতে থাকে। ছদ্মবেশে আসা সোর্স এসে মাদক বিক্রেতার জন্য অপেক্ষা করতে থাকে। এমন সময় উলিপুর পুর্ববাজার এলাকার আঃ সামাদের পুত্র পিয়াস মিয়া (২৫) ও সরদার পাড়া নিবাসী নুর ইসলাম মাগার পুত্র মোস্ত এগিয়ে গিয়ে মাদক ক্রেতা সেজে আসা সোর্সদের সাথে কথা বলা শুরু করে।

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, ছদ্মবেশে আসা ফোর্সের সদস্যরা পিয়াসকে ঘিরে ফেললে সে তার কোমরে থাকা চাপাতি বের করে উচিয়ে ধরে এবং মোবাইলে শেখ সৈকতকে আসতে বলে। এমন সময় সেখানে বাইক নিয়ে হাজির হয় উলিপুর পুর্ব বাজার এলাকার স্বপন মিয়ার পুত্র শেখ সৈকত ও গিয়াস মিয়ার পুত্র জাহিদ মিয়া। কয়েক মিনিট পর তাদের মধ্যে বাকবিতন্ডা শুরু হয় ততক্ষনে পুরো অপারেশন টিম তাদের ঘিরে ফেলে। এসময় শেখ সৈকতের বাইকে থাকা জাহিদ ও সরদারপাড়া নিবাসী মোস্ত দৌড় দিয়ে পালিয়ে যায়। এদের একজন জাহিদ মৌসুমী হোটেল সংলগ্ন বিকাশ এমসিএস লিঃ এর অফিস কক্ষে আশ্রয় নেয় বলে জানা যায়।

প্রত্যক্ষদর্শীদের কয়েকজন বলেন, সিভিলে থাকা লোকজন ধাওয়া করে বিকাশ এম সি এস লিঃ অফিস কক্ষের টেবিলের নীচ থেকে জাহিদকে আটক করে। এসময় শেখ সৈকত ও পিয়াস মিয়াকেও আটক করে উলিপুর থানার হাতে সোপর্দ করে।

০৬ জুন দুপুড় ১১.১৫ মিনিটের দিকে সিরাজগন্জ থেকে উলিপুরে অপারেশনের র‌্যার-১২ দায়িত্বে থাকা লেফটেনেন্ট ইমরানের সাথে মোবাইলে যোগাযোগ স্থাপন হলে তিনি এ প্রতিবেদক কে বলেন, ঘটনাটি সম্পর্কে উলিপুর থানা অফিসার ইনচার্জকে বলা আছে, উনার কাছে জেনে নিন।

একপর্যায়ে তিনি বলেন, বিষয়টি অর্থ ফ্রড এবং সোর্সকে ইয়াবা দেয়ার কথা ছিলো কিন্তু তারা দিতে পারে নাই। তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করে উলিপুর থানায় সোপর্দ করা হয় বলে জানান। সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায় তারা সোর্সিং কর্তৃক ভ্রান্ত হতে পারেন কিংবা পার্টি এদের কাছ থেকে নগদ টাকা হাতিয়ে নেয়ার উদ্দেশ্যে পরিকল্পনা করতে পারে। যা ফোর্স দেখার পর ঘটনাটি ভিন্ন পথে ধাবিত হয়।

তিনজনকে আটকের ঘটনার বিষয়টি নিশ্চিত করেন উলিপুর থানা অফিসার ইনচার্জ মোয়াজ্জেম হোসেন। তাদের আটক করে উলিপুর থানায় সোপর্দ করে র‌্যাব-১২ সিরাজগন্জ বলে জানান। তাদের বিরুদ্ধে সরকারি কাজে বাধা দান এমন সন্দেহে ১৫১ ধারায় মামলা রজু করে গতকাল ৫ই জুন জেল হাজতে প্রেরন করা হয়।

এদিকে পুলিশের গোপন সূত্রে জানা যায়, র‌্যাব-১২ সিরাজগন্জ টিম তাদের বিরুদ্ধে কোন অভিযোগ দাখিল করেননি। প্রত্যক্ষদর্শীদের মতে, আসামীদের বিরুদ্ধে হামলার অভিযোগ আনার মত উপাদান থাকলেও তা করা হয়নি। তারা যে উদ্দেশ্যে অভিযান পরিচালনা করতে এসেছিলেন তা সোর্সদের মধ্যে মতানৈক্য সৃষ্টি হওয়ায় তাদের অভিযান সফল হয়নি বলে ধারনা করা হচ্ছে । তাদের মতে সিরাজগন্জ টিমকে সোর্স কোন মিথ্যা তথ্য দিয়ে হয়রানি করেছেন মর্মে এ ঘটনার সৃষ্টি হয়।

জেলা পুলিশের গোপন সূত্রে জানা যায়, জেলা পুলিশ কুড়িগ্রামকে এ বিষয়ে আগে থেকে কোন ইনফর্ম করা হয়নি। পরে বিকাল ৪ টায় অপারেশন টিম ইনচার্জ উলিপুর থানায় ফোন করলে কর্তব্যরত এসআই উলিপুর থানায় জিডিনং -১৫৫ মুলে মৌসুমী হোটেল সংলগ্ন বাড়ির সামন থেকে জনতাকে ছত্রভঙ্গ করে এবং আসামীদের হেফাজতে নেন বলে জানা যায়।

ঘটনাটি নিয়ে এলাকায় বিভিন্ন গুজব ছড়াচ্ছে মর্মে উলিপুর উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি মতি শিউলি একজন গুজবকারীর বিরুদ্ধে এ বিষয়ে উলিপুর থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছে বলে জানান। তিনি বলেন, আমার সামনের অফিসের গেট কিঞ্চিৎ খোলা থাকায় কে বা কাহারা জীবন বাচার তাগিদে দৌড় দিয়ে অফিসের টেবিলের নীচে ঢুকে পরে । আমি বাড়ির ভিতর থেকে মানুষের হৈ হট্টগোল শুনে বাহিরে বের হয়ে তাদের কাছে জানতে চাই। উলিপুর থানার একটি টিম এসে তাদের পরিচয় নিশ্চিত হয়ে তারপর একসাথে ঐ পলায়ন রত ছেলেকে আটক করে নিয়ে যায়।

Facebook Comments Box

খবরটি পছন্দ হলে শেয়ার করুন

এই ক্যাটাগরির আরও খবর

All rights reserved © 2021 Newsmonitor24.com
Theme Customized BY IT Rony