1. ashrafali.sohankg@gmail.com : aasohan :
  2. alireza.kg2014@gmail.com : Ali Reza Sumon : Ali Reza Sumon
  3. hrbiplob2021@gmail.com : News Editor : News Editor
শনিবার, ০২ জুলাই ২০২২, ১১:৩৩ অপরাহ্ন
শিরোনাম:-
জাতীয় স্লোগান হিসেবে ‘জয় বাংলা’ ব্যবহারের নির্দেশঃ হাইকোর্ট চিকিৎসকের ফেসবুক পোস্টে অজ্ঞাত রোগীর সন্ধান পেলো স্বজনরা পদ্মা সেতু উদ্বোধন আনন্দের জুয়ার কিশোরগঞ্জে তাড়াইলে আওয়ামীলীগের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে আনন্দ মিছিলের পরিবর্তে ত্রাণ বিতরণ কিশোরগঞ্জে বন্যা কবলিত এলাকায় ত্রাণ সামগ্রী নিয়ে ঢাকা বিভাগীয় কমিশনার দুর্যোগ মোকাবিলায় সরকার আগে থেকেই প্রস্তুত- মো.খলিলুর রহমান কিশোরগঞ্জে জাতীয় ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাম্পেইন হাওরের উন্নয়ন নিয়ে ঈর্ষান্বিত হইয়েন না- এমপি তৌফিক যোগ্য হাতেই সদর আওয়ামীলীগ কিশোরগঞ্জে অভিনব কায়দায় ব্যাংকে টাকা চুরি করতে গিয়ে এক ব্যক্তি আটক নিয়ন্ত্রণহীন গাড়ি ও জনসচেতনতার অভাবেই বেশিরভাগ সড়ক দূর্ঘটনা- পুলিশ সুপার কিশোরগঞ্জ

একটানা ৯ বছর কারাগারে আটকে রেখে ধ`র্ষন করা হয়েছিল কোরআনের হাফেজা আফিয়া সিদ্দিকীকে

রিপোর্টার:
  • সর্বশেষ আপডেট : শুক্রবার, ৫ জুন, ২০২০
  • ৫০ সংবাদটি দেখা হয়েছে

এ’কটানা ৯ ব’ছর কা’রাগারে আ’টকে রেখে ধ`র্ষন করা হয়েছিল কোরআনের হাফেজা আফিয়া সিদ্দিকীকেড. আফিয়া সিদ্দিকী যিনি করাচীর সম্ভ্রান্ত ও উচ্চ শি’ক্ষিত পরিবারে ১৯৭২ সালের ২ মার্চ জন্ম গ্রহণ করেন।

তিনি আ’ন্তর্জাতিক খ্যা’তি সম্পন্ন বিখ্যাত একজন মু’সলিম স্নায়ুবিজ্ঞানী এবং একজন আলোচিত মহিলা।আফিয়া সিদ্দিকা যিনি ছিলেন নিউরো সাইন্টিস্ট, যি’নি ছিলেন একজন পি.এইচ.ডি. হোল্ডার এবং যিনি ছিলেন একজন কোরআনের হাফেজা যার বুকে ধারন করেছিলেন পবিত্র কোরআনের ত্রিশটি পারা।

শিক্ষাগত যো’গ্যতা :জন্ম সূত্র অনূসারে এই উচ্চ শিক্ষিত নারী পাকিস্তানের নাগরিক। শিক্ষা জীবনে তিনি যুক্তরাষ্ট্রের সর্বোচ্চ ডিগ্রী ধারী (পিএইচডি) লাভ করেন।স্বনামধন্য এই স্নায়ুবিজ্ঞানী শিক্ষা জীবনে অ’সামান্য মেধার পরিচয় দেন। যুক্তরাষ্ট্রের ব্রন্ডেইস হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয় তাকে “নিউরোলজি” বি’ষয়ে ডক্টরেট ডিগ্রী প্রদান করে।

এছাড়াও স’ম্মান সূ’চক ও অন্যান্য ডিগ্রীর ১৪০ টিরও বেশি সার্টিফিকেট তিনি অর্জন করেছেন। তিনি “হাফিযে কোর’আন” ও “আলিমা”।শিক্ষা লাভের পর তিনি ২০০২ সাল পর্যন্ত যুক্তরাষ্ট্রেই বসবাস করেন ও বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে চাকুরি করতেন। সহকর্মীরা তাকে অত্যন্ত ভদ্র, নম্র ও বিনয়ী হিসেবে পরিচয় দেন।

গ্রে’ফতার ও অ’পহরণ :পিএইচডি ডিগ্রি ধারী এই মহিলাকে মা’র্কিন গোয়েন্দা সংস্থা এফবিআই ২০০৩ সালে পাকিস্তানী কর্তৃপক্ষের সহযোগিতায় আল কায়েদার সা’থে যোগাযোগ থাকার অ’ভিযোগে পাকিস্তানের করাচির রাস্তা থেকে তার তিন স’ন্তানসহ গ্রে’ফতার করে।

পরে প্রচলিত আ’ইনের আওতায় না এনে পাকিস্তানের কা’রাগারে গ্রে’ফতার না রেখেই তাকে আফগানিস্তানের সা’মরিক ঘাঁটিতে তাকে ৫ বছর ব’ন্দি করে রাখা হয়।মা’র্কিন আ’দালত তাকে ৮৬ বছর কারাদন্ড দেয়।

ব’ন্দি অ’বস্থায় তার ও’পর ব্যাপক অমানবিক নি’র্যাতনের অভিযোগ চলেছে।পরে পাকিস্তানে কোনো বিচার কার্য না করেই সরাসরি আফগানিস্তানে নিয়ে গেলে পাকিস্তান স’রকার ব্যাপক সমালোচনার সম্মুখীন হয়।এবং তাকে অ’পহরনের অভিযোগ ওঠে।

তৎকালীন স’রকারের এতে হাত রয়েছে বলে মনেকরা হয়।গ্রে’ফতারের অভিযোগ ও ব’ন্দী জীবন :আল-কায়দার সাথে যোগাযোগ থাকার অ’ভিযোগে তাকে গ্রে’ফতার করা হয় তিন স’ন্তান আহমদ, সুলাইমান ও মারিয়মকে সহ।আফগানিস্তানে ব’ন্দি রাখা কালে তার ও’পর অমানবিক নি`র্যাতন করা হয়েছে বলে অভিযোগ করা হয়।

তাকে মা’নসিক, যৌ’ন ও শা’রীরিকভাবে নি`র্যাতন করা হত এবং তাকে দিনের মধ্য কয়েকবার করে ধ`র্ষন করা হয়েছে, ন’গ্ন করে কোরআনের উপর হাটিয়েছে বলেও অভিযোগ করা হয়।বাগরাম কা’রাগার থেকে মুক্তি প্রাপ্ত ব’ন্দিরা অভিযোগ করেছে “নি`র্যাতনের সময়ে আফিয়ার আত্ন-চি’ৎকার অন্য ব’ন্দির পক্ষে সহ্য করাও কঠিন ছিলো।

” ওই নারীর ও’পর নি`র্যাতন বন্ধ করার জন্য অন্য ব’ন্দীরা অ’নশন পর্যন্ত করেছিলো।এই আফিয়া সিদ্দিকাই কিডন্যাপ হয়েছিল ২০০৩ সালে যার স্থায়িত্ব ছিল ২০০৮ সা’ল পর্যন্ত।পরবর্তীতে নিয়ে যাওয়া হয় আমেরিকান ট`র্চার সেলে এবং সেখানে তার উপড় চলে পাশবিক নি`র্যাতন,মা’নসিক নি`র্যাতন।

কো’রআন শ’রীফের পাতা ছিড়ে মেঝেতে বিছিয়ে রেখে তাকে উলংগ করে বলা হত যাও কোরআনের উপর দিয়ে গিয়ে কাপড় নিয়ে আসো।ঐ নরপ`শুরা তাকে বিভিন্নভাবে নি`র্যাতন চালাতে শুরু করে,খেলায় মেতে ওঠে ঐ হায়েনার দলেরা।

পালাক্রমে গনধ`র্ষনের স্বীকার হন এই কোরআনের হাফেজা,নিউরো সাইন্টিস্ট ড:আফিয়া সিদ্দিকা। আমেরিকান আ’দালত তাকে ৮৬ বছরের সাজা ঘোষনা করে এক আমেরিকান সে’না হ`ত্যা চেস্টার অ’পরাধে।

আ’দালতে বি’চারক কিছু বলার আছে কিনা জানতে চাইলে ড:আফিয়া সিদ্দিকা বলেন…আপনি তাদের ক্ষমতা দিয়েছেন আমাকে রে’প করার,উ’লঙ্গ করে সার্চ করার। আপনার কাছে কিছুই বলার নেই আমার,আমি আমার আল্লাহর কাছে যেয়েই যা বলার বলব।আমিতো সেদিনই ম’রে গেছি যেদিন আমাকে প্রথম ধ`র্ষন করা হয়েছিল। আমাকে ছেড়ে দিন, আমাকে আমার দেশে যেতে দিন।”

Facebook Comments Box

খবরটি পছন্দ হলে শেয়ার করুন

এই ক্যাটাগরির আরও খবর

All rights reserved © 2021 Newsmonitor24.com
Theme Customized BY IT Rony