করিমগঞ্জ পতাকা উত্তোলন দিবস উদযাপিত

করিমগঞ্জের মাটিতে প্রথম স্বাধীন বাংলাদেশের পতাকা উড়েছিল ১১ মার্চ।

এ উপলক্ষে বুধবার করিমগঞ্জে পতাকা উত্তোলন দিবস উদযাপিত হয়েছে।

দিবসটি উপলক্ষে বেলা ১১টায় করিমগঞ্জ সরকারি কলেজ মাঠে জাতীয় সংগীতের মাধ্যমে পতাকা উত্তোলন করেন করিমগঞ্জে প্রথম স্বাধীন বাংলার পতাকা উত্তোলক বীর মুক্তিযোদ্ধা হারুন অর রশিদ।

পরে কলেজ মিলনায়তনে মুক্তিযুদ্ধ ও বাংলাদেশ শীর্ষক এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

মুক্তিযুদ্ধ গণগবেষণা কেন্দ্রের আহ্বায়ক বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ ইকবালের সভাপতিত্বে এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন করিমগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার তসলিমা নূর হোসেন।

হাবিবুর রহমান বিপ্লব ও আব্দুল জলিলের সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন সহকারী কমিশনার (ভূমি) শামীমা ইয়াসমিন, করিমগঞ্জ সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ মোক্তার হোসেন, ওসি (তদন্ত) নাহিদ হাসান সুমন, নারী নেত্রী শাহিদা আক্তার খানম, উপজেলা জাতীয় পার্টির সদস্য সচিব মতিউর রহমান ভূইয়া, করিমগঞ্জ পাইলট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক কবির উদ্দিন মিল্কী, মুক্তিযোদ্ধা সন্তান কমান্ডের সদস্য সচিব সরকার জাহাঙ্গীর সিরাজী, সাবেক ছাত্রলীগ নেতা আলী আহম্মেদ লিমন প্রমুখ।

মুক্তিযোদ্ধা, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের বিপুল সংখ্যক নেতৃবৃন্দের উপস্থিতি আলোচনা অনুষ্ঠান কে প্রাণবন্ত করে তোলে।

মুসলেহ উদ্দিন আহম্মেদ সিআইপি, কমরেড ফরিদ উদ্দিন মুজাহিদ গোলাম ফারুক, হারুন অর রশিদ, আবু সুফিয়ান, মশিউর রহমান বাবুল, পালাকার অজিত সূত্রধর, নজরুল ইসলাম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

সভায় প্রধান বক্তার বক্তব্যে তৎকালীন ছাত্র সংগ্রাম পরিষদের সভাপতি ও থানা ছাত্রলীগের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি হারুন অর রশিদ ১৯৭১ সনের ১১ মার্চের পতাকা উত্তোলনের পটভূমি বর্ণনা করেন।

বর্তমান প্রজন্মকে সঠিক ইতিহাস জানাতে মুক্তিযুদ্ধ গণগবেষণা কেন্দ্রের ভূমিকার ভূয়সী প্রশংসা করেন। তিনি বলেন, ‘নতুন প্রজন্মের কাছে সঠিক ইতিহাস তুলে ধরতে এ ধরনের আয়োজনের বিকল্প নেই।’

শেষে পতাকা উত্তোলক বীর মুক্তিযোদ্ধা হারুন অর রশিদের হাতে সংগঠনের পক্ষ হতে সম্মাননা স্মারক তুলে দেওয়া হয়েছে।

Facebook Comments
custom_html_banner1

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *