1. ashrafali.sohankg@gmail.com : aasohan :
  2. alireza.kg2014@gmail.com : Ali Reza Sumon : Ali Reza Sumon
  3. hrbiplob2021@gmail.com : News Editor : News Editor
বুধবার, ২৮ জুলাই ২০২১, ০৪:২৩ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:-
জাতীয় স্লোগান হিসেবে ‘জয় বাংলা’ ব্যবহারের নির্দেশঃ হাইকোর্ট কিশোরগঞ্জে কোরবানির ডিজিটাল পশুর হাট কুড়িগ্রাম জেলা যুবলীগের উদ্যোগে অন্ধ প্রতিবন্ধীদের মাঝে নগদ টাকা ও খাদ্য বিতরণ কুড়িগ্রাম জেলা ছাত্রলীগের উদ্যোগে বিনামূল্যে শাক-সবজি বাজার উ‌দ্বোধন করিমগঞ্জ থেকে গাঁজা ও নগদ অর্থ’সহ মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করেছে র‍্যাব আশরাফ আলী সোহান একজন তরুন উদ্যোক্তা সব্যসা‌চী লেখক ও ক‌বি ‌সৈয়দ শামসুল হ‌কের সমাধী‌তে কুড়িগ্রাম জেলা ছাত্রলী‌গের শ্রদ্ধা বাংলা’র শিক্ষক গাইছেন হিন্দিতে! কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলা বিএনপি’র যুগ্ম আহবায়ক দানিস আর নেই হিয়া ইলেক্ট্রনিক্সকে অবাঞ্ছিতকরন প্রসঙ্গে কিশোরগঞ্জে বিশাল আকৃতির ষাঁড় নাম তার ভাটির রাজা; কুরবানিতে বিক্রয়ের জন্য প্রস্তুত

ক’রোনা থেকে রক্ষায় ঘরোয়া চিকিৎসা বলে দিলেন বিজ্ঞানী ড. বিজন।

রিপোর্টার:
  • সর্বশেষ আপডেট : রবিবার, ৩১ মে, ২০২০
  • ৫২ সংবাদটি দেখা হয়েছে

বিশ্বব্যাপী ম’হামারি ক’রোনা ভা’ইরাসের সংক্রমণে পুরো মানবজাতিই এখন চরমবিপর্যয়ে। বাংলাদেশও এই মহা’মারির আ’ঘাতে বিপর্যস্ত। প্রতিদিন বাড়ছে আ’ক্রান্ত ওমৃ;;তের সংখ্যা। প্রা;ণঘা;তী এ ভা’ইরাস থেকে রক্ষা পেতে আ’তঙ্কিত না হয়ে হাতেরনাগালেই পাওয়া যায় এমন কিছু পদ্ধতি ও ওষুধ গ্রহণের উপায় জানিয়েছেন বিজ্ঞানী ড.বিজন কুমার শীল।

অনুজীব বি’জ্ঞানী ড. বিজন কুমার শীল গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের র‌্যাপিডডট ব্লট কিট উদ্ভাবন দলের প্রধান বিজ্ঞানী। ১৯৯৯ সালে ছাগলের মড়কঠেকানোর জন্য পিপিআর ভ্যা’কসিন আবিষ্কার করেছিলেন তিনি। ২০০২ সালে ডেঙ্গুরকুইক টেস্ট পদ্ধতির আবিষ্কারকও ড. বিজন। যা সিঙ্গাপুরে তার নামেই প্যাটেন্টকরানো।

২০০৩ সা’লে তিনি সার্স ভাইরাসের কুইক টেস্ট পদ্ধতির আবিষ্কার করেন।এটাও তার নামে প্যাটেন্ট করা। দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ায় সা’র্স ভাইরাস প্রতিরোধে সিঙ্গাপুরসরকারের একজন বিজ্ঞানী হিসেবে অন্যতম ভূমিকা পালন করেছিলেন তিনি।বর্তমানের করোনা ভাইরাস (কোভিড-১৯) মূলত সার্স-২ ভাইরাস।

সার্সের ভ’য়াবহতার কথা মনে করে মানুষ যেন আ’তঙ্কিত না হয় সেজন্য বিজ্ঞানীরাকোভিড-১৯ নামকরণ করেছিল। প্রচারবিমুখ ড. বিজন কুমার শীল দেওয়া একান্তসাক্ষাৎকারে করোনা ভাইরাস থেকে বাঁচতে কয়েকটি সহজ পদ্ধতি অনুসরণের কথাউল্লেখ করেছেন।

তার সহ’জ ঘ’রোয়া পদ্ধতিগুলো তুলে ধরা হলো: করোনাকে অঙ্কুরেবিনাশ করাই সব থেকে ভালো উল্লেখ করে অনুজীব বিজ্ঞানী ড. বিজন কুমার শীলবলেন, দুটি প’থ খোলা রয়েছে- একটি হচ্ছে করোনা ভাইরাস আক্রান্ত না হতে চাইলেবিশ্বস্বাস্থ্য সংস্থার বিধি বিধান মেনে চলতে হবে।বিরুদ্ধে প্রতিরোধে খুব ভালো কাজ করে।

ভি’টামিন সি এবং জিংক শরীরের রোগপ্রতিরোধ ক্ষমতাকে সতেজ, সজীব রাখে এবং প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়িয়ে দেয়।আ’রেকটিহচ্ছে কেউ যদি আক্রান্ত হন, যেমন গলাব্যথা, শুকনো

কফ ছা’ড়া কাশি, কা’শি হবে কিন্তুকফ বের হবে না। এটা করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার প্রথম লক্ষণ। অন্যইনফ্লুয়েঞ্জাতে আক্রান্তদের হাঁচি, সর্দি ও নাক দিয়ে পানি পড়ে। তবে করোনা ভাইরাসশুকনো কাশি দিয়ে শুরু হয়।

এক্ষেত্রে স’হজ পদ্ধতি হচ্ছে বেশি কড়া না হালকা রং চাবারবার খাওয়া, গরম পানি দিয়ে গারগেল করা।এর চেয়ে ভালো উপায় হচ্ছে আদা, লবঙ্গ ও একটা গোলমরিচ পা’নি মিশিয়ে গরমইনফেকশন রোধ করে।আপনার জ্বর হোক বা হোক এই মুহূর্তে আমাদের সবারউচিত সকালে ঘুম থেকে উঠে, দুপুরে এবং সন্ধ্যায় গারগেল করা।

এরফলে শ’রীরে যদিভা’ইরাস ঢোকেও তাহলে সেটা আর বাড়তে পারবে না।এটা শুধু করোনা ভাইরাস না আরও অনেক ইনফেকশনকে রোধ করতে পারে। কেউযদি এটা প্রতিদিন করতে পারে, তাহলে তার আক্রান্ত হবার সম্ভাবনা খুবই কম।

তি’নিআরও বলেন, ক’রোনা ভা’ইরাসের কারণে যদি কখনও কারও পেটের সমস্যা দেখা দেয়তাহলে নিমপাতা বেটে সবুজ রসের সঙ্গে এক চামচ হলুদের গুঁড়া পানির সঙ্গে মিশিয়েসকালে এবং রাতে খেলে তার পেটের ইনফেকশন কমে যাবে, সে অনেক ভালো থাকবে।

খবরটি পছন্দ হলে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরও খবর

All rights reserved © 2021 Newsmonitor24.com
Theme Customized BY IT Rony