কুড়িগ্রামের উলিপুরে ২ চোর আটক

এজি লাভলু, কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি: কুড়িগ্রামের উলিপুর পৌরশহরের এক ইলেক্ট্রনিক্স ব্যবসায়ীর বুদ্ধিমত্তায় ফারুক হোসেন নামের এক চোর ও তার সহযোগীকে আটক করেছে পুলিশ। আটককৃতদের বিরুদ্ধে মামলা দায়েরের পর গতকাল শনিবার বিকেলে তাদের কুড়িগ্রাম জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

খোজ নিয়ে জানা গেছে, উপজেলার আব্দুল হাকিম গ্রামের চাঁদ মিয়ার পূত্র ব্যবসায়ী জাহাঙ্গীর হোসেন উলিপুর মধ্যবাজারে ‘ভাই ভাই ইলেক্ট্রনিক্স’ নামের ব্যবসা পরিচালনা করে আসছিলেন। গত দুই বছর থেকে প্রায় প্রতি মাসে তার দোকানের চালের টিন খুলে লোহার অ্যাংগেল কেটে চুরি করতো একদল চোর। চুরি ঠেকাতে তিনি দোকানে সিসি ক্যামেরা লাগালেও তবুও চুরি ঠেকাতে পারছিলেন না। প্রতিবারেই চোরের দল সিসি ক্যামেরা ভেঙ্গে চুরি করতো। এ পরিস্থিতিতে নিঃস্ব জাহাঙ্গীর হোসেন কৌশলে দোকানের ভিতরে ছোট আকারের গোপন ক্যামেরা লাগিয়ে রাখেন। গত ২৩ জানুয়ারি রাতে দোকান শেষ করে বাড়ি গেলে পরদিন শুক্রবার এসে দেখতে পান তার দোকানের নগদ টাকাসহ প্রায় সাড়ে ৮ লাখ টাকার মালামাল চুরি হয়ে গেছে।

পরে গোপন সিসি ক্যামেরার ভিডিও ফুটেজ দেখে পার্শ্ববর্তি দোকানদার ফারুক হোসেন (২৮)কে চোর সনাক্ত করেন। ঘটনা জানাজানি হলে স্থানীয় ব্যবসায়ীরা গত শুক্রবার রাতে তাকে আটক করে পুলিশে সোর্পদ করেন। সে মধ্যবাজার এলাকার আব্দুর রহমানের পূত্র বলে জানা গেছে। পরে তার দেয়া তথ্যমতে রিক্সা চালক উপজেলার গুনাইগাছ ইউনিয়নের কৃষ্ণ মোহন গ্রামের মৃত রমজান আলীর পূত্র রিক্সা চালক জাহাঙ্গীর আলম (৩৬)কে চোরাই মালামালসহ আটক করে পুলিশ।

দোকান মালিক জাহাঙ্গীর হোসেন বলেন, দীর্ঘদিন থেকে আমার দোকান চুরি করে আমাকে পথে বসিয়ে দিয়েছে। চুরি ঠেকাতে পরে আমি চার্জার ব্যাটারী দিয়ে গোপানে পুতুলের মতো সিসি ক্যামেরা সেট করে অবশেষে চোর ধরতে পেরেছি।

উলিপুর থানার অফিসার ইনচার্জ মোয়াজ্জেম হোসেন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, আটক দুইজনকে কুড়িগ্রাম জেল-হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

Facebook Comments
custom_html_banner1

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *