কুড়িগ্রামে ৫৬৯ জন প্রবাসীর মধ্যে ২৫৬ জন হোম কোয়ারেন্টাইনে; ৮০ জন অবমুক্তি

এজি লাভলু, স্টাফ রিপোর্টার

কুড়িগ্রামে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে সতর্কতামূলক ব্যবস্থা হিসেবে ৫৬৯ জন বিদেশ ফেরত বাংলাদেশির তালিকা থাকলেও মঙ্গলবার পর্যন্ত ২৫৬ জনকে করোনাভাইরাস সংক্রমণ রোধে হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে।

এ পর্যন্ত ২৫৬ জনের মধ্যে ৮০ জনের ১৪ দিনের কোয়ারেন্টাইন মেয়াদ শেষ এবং তাদের শরীরে করোনাভাইরাসের কোন উপসর্গ না পাওয়ায় স্বাভাবিক চলাফেরার অনুমতি দিয়েছে চিকিৎসা বিভাগ ।

ইতালি, সৌদি আরব, দুবাই, কাতার, কুয়েত, দক্ষিণ কোরিয়া, সিঙ্গাপুর, যুক্তরাষ্ট্র, ভারতসহ বিভিন্ন দেশ থেকে ৫৬৯ জন প্রবাসী বাংলাদেশি কুড়িগ্রাম জেলার বিভিন্ন উপজেলায় ফিরে গেছেন। এদের মধ্যে মাত্র ৫৬৯ জন হোম কোয়ারেন্টাইনে। অবশিষ্ট সংখ্যক বিদেশ ফেরত প্রবাসী হোম কোয়ারেন্টাইনে অবস্থান না নেয়ায় তাদের মধ্যে করোনা ভাইরাস সংক্রমণের আশঙ্কা করা হচ্ছে।

কুড়িগ্রাম সিভিল সার্জন ডা. হাবিবুর রহমান জানান, বিদেশ ফেরত ৫৬৯ জন বাংলাদেশিদের দেশে ফেরার পর অনেকেই বিভিন্ন এলাকায় চলে গেছেন। বিদেশ ফেরত বাংলাদেশি ৫৬৯ জন সনাক্ত করে হোম কোয়ারেন্টাইনে নিতে পুলিশসহ প্রশাসনের সহায়তায় মাঠে কাজ শুরু করছে। করোনাভাইরাস মোকাবিলায় জেলা প্রশাসন ও জেলা পুলিশের সহায়তায় কাজটি করা হচ্ছে বলে জানান তিনি। বিদেশ ফেরতদের করোনা ভাইরাসের অস্তিত্ব মেলেনি। তবে হোম কোয়ারেন্টাইনে বাধ্যতামূলক থাকতে হবে।

এ বিষয়ে পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মহিবুল ইসলাম খান (বিপিএম) বলেন, ইমিগ্রেশন সুত্রে বিদেশ ফেরতদের একটি তালিকা পাওয়া গেছে। পুলিশ বাড়ি বাড়ি গিয়ে বিদেশ ফেরতদের হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকার জন্য বাধ্য করা হচ্ছে। হোম কোয়ারেন্টাইন না মানার অভিযোগ পেলে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Facebook Comments
custom_html_banner1

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *