গ’ত ২৪ ঘণ্টায় মৃত ১৯ জ’নের ১২ জনই ঢাকার’- স্বা’স্থ্য অধিদপ্তর।

বাংলাদেশে ক’রোনায় মৃ’ত্যু ও আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা দিন দিন বেড়েই চলেছে। দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ১৯ জনের মৃত্যু হয়েছে। এর মধ্যে ঢাকার হাসপাতালগুলোতে মারা গেছেন ১৩ জন। এর মধ্যে ১২ জন ঢাকার বাসিন্দা। আরেকজন পাবনার।এছাড়া নারায়ণগঞ্জ, মুন্সীগঞ্জ, ও খুলনা বিভাগে (নড়াইল) একজন করে মারা গেছেন।

আ’র চট্টগ্রাম বিভাগে ৩ জন মারা গেছেন, এর মধ্যে চট্টগ্রামের ২ জন ও কুমিল্লার একজন রয়েছেন।বুধবার (১৩ মে) দুপুরে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের করোনাভাইরাস সংক্রান্ত নিয়মিত হেলথ বুলেটিনে এ তথ্য জানানো হয়। অনলাইনে বুলেটিন উপস্থাপন করেন স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা।দেশে করোনাভাইরাসে গেল ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত হয়েছেন ১ হাজার ১৬২ জন। দেশে মোট করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৭ হাজার ৮২২ জনে।

এ’ছাড়া করোনায় আক্রান্ত হয়ে আরও ১৯ জন মারা গেছেন। ফলে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২৬৯ জনে। এদিকে আরও ২১৪ জন সুস্থ হয়েছেন। এ নিয়ে মোট তিন হাজার ৩৬১ জন সুস্থ হলেন।অপরদিকে মৃতদের বয়স বিশ্লেষণে দেখা যায় শূন্য থেকে ১০ বছরের ১ মেয়ে মারা গেছে।

এ’ছাড়া ৩১ থেকে ৪০ বছরের ১ জন, ৫১ থেকে ৬০ বছরের ৭ জন, ৬১ থেকে ৭০ বছরের ৫ জন, ৭১ থেকে ৮০ বছরের ৫ জন মারা গেছেন।উল্লেখ্য, গত ডিসেম্বরে চীনের উহানে করোনা ভাইরাসের উপস্থিতি শনাক্ত হলেও তা মূলত প্রকাশ্যে আসে জানুয়ারিতে। ফেব্রুয়ারিতে চীনে যখন এটি ভয়াবহ রূপ নেয় তখন ভাইরাসটি ছড়িয়ে পড়ে বিশ্বের অন্যান্য দেশে।

বাংলাদেশে ন’ভেল ক’রোনাভা’ইরাসে (কভিড-১৯) সংক্রমিত প্রথম রোগী শনাক্ত হয় গত ৮ মার্চ। আর ১৮ মার্চ করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে প্রথম একজনের মৃত্যু হয়।এখন পর্যন্ত বিশ্বব্যাপী এ ভাইরাসটিতে সংক্রণের উপস্থিতি শনাক্ত হয়েছে ৪৩ লাখ ৪২ হাজার ৮৪৭ জনের শরীরে। এছাড়া এতে মারা গেছেন ২ লাখ ৯২ হাজার ৮৯৯ জন। ভাইরাসটিতে সংক্রমিত হওয়ার পর সুস্থ হয়েছেন ১৬ লাখ ২ হাজার ৭১২ জন।

Facebook Comments
custom_html_banner1

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *