ঘোগাদহ ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে মানববন্ধন!

এজি লাভলু, স্টাফ রিপোর্টার:

কুড়িগ্রাম সদর উপজেলার ঘোগাদহ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান শাহ আলম মিয়ার বিরুদ্ধে করোনা ভাইরাস প্রাদুর্ভাব মোকাবিলায় কর্মহীন ও দুস্থ মানুষদের জন্য সরকারের বরাদ্দকৃত খাদ্য সহায়তা বিতরণে অনিয়মের অভিযোগ এনে মানববন্ধন করেছে সংশ্লিষ্ট ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য ও এলাকাবাসী। শনিবার (১৮ এপ্রিল) দুপুরে ঘোগাদহ ইউনিয়ন পরিষদ সংলগ্ন ঘোগাদহ বাজারে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

মানববন্ধনে ওই ইউনিয়ন পরিষদের সংরক্ষিত তিন নারী সদস্য সহ দশজন ইউপি সদস্য এবং এলাকার কয়েকশ’ মানুষ অংশ নেন।
মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন ঘোগাদহ ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ড ইউপি সদস্য রফিকুল ইসলাম, ৩নং ওয়ার্ড সদস্য নুরুল আমিন, ৪নং ওয়ার্ড ইউপি সদস্য আবুল কালাম আজাদ, ৫নং ওয়ার্ড ইউপি সদস্য মোজাফফর হোসেন খোকা, ৭, ৮ ও ৯নং ওয়ার্ড সংরক্ষিত নারী সদস্য ফুলোবালা প্রমুখ।

বক্তারা অভিযোগ করেন, করোনা পরিস্থিতি মোকাবিলায় সরকার কর্তৃক হতদরিদ্র ও কর্মহীন মানুষের জন্য খাদ্য সহায়তা দেওয়া হলেও ইউনিয়নের ১, ২, ৩ ও ৫নং ওয়ার্ডে কোনও খাদ্য সহায়তা দেওয়া হয়নি। চেয়ারম্যান শাহ আলম মিয়া বরাদ্দকৃত খাদ্য সহায়তা নিজের দলীয় লোক সহ বাটোয়ারা করেছেন। তাদের ইচ্ছে মত পছন্দের লোকদের মাঝে বিতরণ করেছেন। খাদ্য বিতরণে ওয়ার্ড সদস্যদের কোনও মতামত নেওয়া হয়নি। ফলে প্রকৃত অভাবগ্রস্থরা সরকারের খাদ্য সহায়তার সুফল থেকে বঞ্চিত রয়ে গেছে।

বক্তারা চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে অভিযোগের তদন্ত এবং বঞ্চিত হতদরিদ্রদের জন্য খাদ্য সহায়তার দাবি জানান।

চেয়ারম্যান শাহ আলমের সাথে মোবাইলে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, করোনাভাইরাসের কারণে সরকার যেখানে সামাজিক দুরত্ব বজায় রেখে থাকার পরামর্শ দিয়েছে সেখানে এধরনের মানববন্ধন অযৌক্তিক। তিনি বলেন আমার ইউপিতে আমি ১১ টন মাল পেয়েছি এবং সেগুলো সুষ্ঠভাবে বণ্টন করেছি। কোথাও কোন অনিয়ম হয়নি। তিনি আরও জানান, আমার ইউপিতে কয়েকজন বিএনপি ও জামাতের ওয়ার্ড মেম্বার আছে, তাদের ইন্ধনেই এ কাজগুলো হচ্ছে এবং তারা সরকারের ভাবমূর্তি নষ্ট করছে।

Facebook Comments
custom_html_banner1

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *