জ’নগণের টাকায় কেনা ত্রাণ আ’ওয়ামী লীগের নেতারা চু’রি করছে‌: রিজভী।

বি’এনপি’র সিনিয়র যু’গ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, দেশে দুর্ভিক্ষের ছায়া দেখতে পাচ্ছি। যারা দিন আনে দিন খায়, গরিব, অসহায় মানুষ, কর্মহীন মানুষ তারা অনেক কষ্টে আছেন। অথচ জনগণের টাকায় কেনা ত্রাণ চেয়ারম্যান মেম্বার ও আওয়ামী লীগের নেতারা চুরি করছে‌।

মা’নুষ মরছে, হাহাকার করছে কাজে যেতে পারছে না আর সরকারের লোকেরা ত্রাণ চুরি করছে।রোববার (১৭ মে) সকালে ময়মনসিংহের পাইথল ইউনিয়নে জেলা বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক ডা. মোফাখখারুল ইসলাম রানার উদ্যোগে ত্রাণ বিতরণের সময় তিনি এসব কথা বলেন।রিজভী বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ৫০ লাখ লোককে ১২৫৭ কোটি টাকা দেবেন।

আ’মরা এখন খ’বর দেখছি, সরকারের লোকেরা প্রতিজনের কাছ থেকে ৫০০ টাকা রেখে দুই হাজার টাকা দিচ্ছে। আবার যারা তালিকা করছেন তাদের নিজস্ব লোক আত্মীয়-স্বজনদের নাম তালিকায় দিচ্ছেন। গরিব মানুষের নাম তালিকায় থাকে না। তালিকা এমনভাবে করেন যেন প্রতিষ্ঠানের মালিকের নাম আছে কর্মচারীর নাম নেই। এটা কোনো কাজ হতে পারে।

তা’হলে কোন পরিস্থিতি বিরাজ করছে একবার চিন্তা করুন। এটা তো জনগণের টাকা। সরকার কিংবা আওয়ামী লীগের টাকা নয়। মহাদুর্যোগের মধ্যেও গরিব অসহায় মানুষের টাকা আত্মসাৎ করা হলে তাহলে তারা কোথায় যাবে। তারা তো না খেয়ে মারা পড়বে।তিনি বলেন, চীনে জানুয়ারি মাসে করোনা মহামারি শুরু হয়। তখন থেকে আমাদের দেশে প্রতিরোধমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করা দরকার ছিল। বাংলাদেশ সরকার সে পদক্ষেপ নেয়নি।

অ’ন্যান্য অনেক দেশ প্রতিরোধমূলক ব্যবস্থা নেয়ায় তারা ভালো আছে। আর বাংলাদেশ পদক্ষেপ না নেয়ায় প্রতিদিন এক হাজারের বেশি লোক আক্রান্ত হচ্ছে। প্রতিদিন ১৫ থেকে ২০ জন লোক মারা যাচ্ছেন। সরকার করোনা নিয়ন্ত্রণে সম্পূর্ণভাবে ব্যর্থ হয়েছে।

বি’এনপি’র ত্রাণ বিতরণের কথা তুলে ধরে রিজভী বলেন, বিএনপি’র নেতাকর্মীরা পকেটের টাকা দিয়ে সারাদেশে অসহায় গরীব মানুষকে ত্রাণ দিচ্ছে।

Facebook Comments
custom_html_banner1

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *