জু’মার নামাজের মধ্যদিয়ে মসজিদে ফিরছে হা’য়া সোফিয়া

শুক্র’বার জুমা’র নামাজের মধ্যদিয়ে ৮৬ বছর পর মসজিদ হিসেবে খুলছে বিশ্বঐতিহ্য তুরস্কের হায়া সোফিয়া। এদিন জুমা’র নামাজে তুর্কি প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইপ এরদোয়ান, ন্যাশনালিস্ট মুভমেন্ট পার্টির নেতা ডেভলেত বাহচেলিসহ রা’ষ্ট্রীয় ঊর্ধ্বতন কর্মক’র্তা উপস্থিত

 

থাকবেন। উদ্বো’ধনী নামাজে অংশ নেয়ার সুযোগ পাবেন অন্তত দেড় হাজার মুসল্লি। ১৯৮৫ সালে জাদুঘর থাকাকালে হায়া সোফিয়াকে বিশ্বঐতিহ্যের তালিকায় অন্তর্ভুক্ত করে ইউনে’স্কো। দেশি-বিদেশি পর্যটকদের জন্য তুরস্কের সর্বাধিক দর্শনীয় স্থানগু’লোর মধ্যে হায়া সোফিয়া অন্যতম। ইস্তাম্বুল বিজয়ের আগে ৯১৬ বছর

 

হায়া সোফিয়ার গি’র্জা ছিল। ১৪৫৩ থেকে ১৯৩৪ সাল পর্যন্ত ব্যবহার হয়েছে মসজিদ হিসেবে। ৮৬ বছর ছিল জাদুঘর। ১০ জুলাই তুরস্কের আ’দালত ১৯৩৪ সালে হায়া সোফিয়াকে জাদুঘর বানানোর ডিক্রি বাতিল করে মসজিদে ফিরিয়ে আনার রায় দেন। যার মাধ্যমে হায়া

 

সোফিয়াকে মসজিদে রূপান্ত’রের সুযোগ তৈরি হয়। জাদুঘরে রূপ দেয়ার আগে ৫০০ বছর স্থাপনাটি মসজিদ ছিল। ১৬ জুলাই তুরস্কের ধ’র্ম বি’ষয়ক অধিদফতর মসজিদে রূপান্তরিত হওয়ার পরে হায়া সোফিয়া পরিচালনার জন্য সং’স্কৃতি ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের স’ঙ্গে একটি সহযোগিতা প্রোটোকল স্বাক্ষর করে। প্রোটোকলের

 

অধীনে সংস্কৃ’তি ও পর্যটন মন্ত্রণালয় পুনরু’দ্ধার ও সংরক্ষণের কাজ তদারকি করবে। ধ’র্ম বি’ষয়ক অধিদফতর ধ’র্মীয় বি’ষয়টি তদারকি করবে। মূল্যবান এ স্থাপনাটি বিনামূল্যে উন্মুক্ত থাকবে দেশি-বিদেশি পর্যটকদের জন্য ।

Facebook Comments
custom_html_banner1

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *