টানা তৃতীয়বার শ্রেষ্ঠ উপজেলা চেয়ারম্যান নুর“ন্নবী চৌধুরী খোকন

এজি লাভলু, কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি: কুড়িগ্রাম জেলায় টানা তৃতীয়বারের মতো শ্রেষ্ঠ উপজেলা চেয়ারম্যান হিসেবে নির্বাচিত “জাতীয় শিক্ষা পদক ২০১৯” পেয়েছেন ভুরুঙ্গামারী উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান নুর“ন্নবী চৌধুরী খোকন।

ভুর“ঙ্গামারী উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও ভুর“ঙ্গামারী উপজেলা আওয়ামী লীগের সফল সাধারণ সম্পাদক এবং বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন এর বাবা নুরন্নবী চৌধুরী খোকন এর সার্বিক প্রচেষ্টায় উপজেলার প্রাথমিক শিক্ষার গুণগত মান উন্নয়ন ও পরিকল্পনা এবং অবকাঠামো নির্মাণে বিশেষ অবদান রাখায় প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর রংপুর বিভাগের উপ-পরিচালকের দপ্তর আনুষ্ঠানিকভাবে কুড়িগ্রাম জেলা পর্যায়ে শ্রেষ্ঠ উপজেলা চেয়ারম্যান হিসাবে ঘোষণা করে “জাতীয় শিক্ষা পদক ২০১৯” প্রদান করেন।

জানা যায় কুড়িগ্রাম জেলাসহ ভুর“ঙ্গামারী উপজেলার মুক্তিযোদ্ধাদের প্রেরণা, মুক্তিযোদ্ধা সংগঠক ও গভর্নর, সফল তিনবারের সংসদ সদস্য, ভুরুঙ্গামারী উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব শামছুল হক চৌধুরীর সু-যোগ্য পুত্র কুড়িগ্রাম জেলার শ্রেষ্ঠ উপজেলা চেয়ারম্যান নুর“ন্নবী চৌধুরী খোকনের প্রচেষ্টায় উপজেলায় উন্নয়ন অব্যাহত। তিনি বঙ্গবন্ধুর আদর্শকে হৃদয়ে ধারন করে ও প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার উন্নয়নের ধারাবাহিকতা বজায় রাখতে উপজেলার সার্বিক উন্নয়নের জন্য কাজ করে উপজেলাবাসীর হৃদয়ে স্থান করে নিয়েছেন।

আরো জানা যায়, রংপুর বিভাগের শ্রেষ্ঠ উপজেলা চেয়ারম্যান নুর“ন্নবী চৌধুরী খোকন ভুর“ঙ্গামারী উপজেলার আইন-শৃঙ্খলার উন্নতি করণ ও সকল কার্যক্রম সুষ্ঠুভাবে পরিচালনা করাসহ সমগ্র মানুষের সুখে দুঃখে পাশে থেকে সহযোগিতা করে আসছেন ও সামাজিক উন্নয়নে ব্যাপক ভূমিকা রাখছেন। তিনি এলাকায় শিক্ষা ও স্বাস্থ্য সেবার উন্নয়ন, অপরাধ প্রবনতা মাদকদ্রব্য চোরাচালান নির্মূল করণ ও নারী ও শিশু নির্যাতন, বাল্য বিবাহ ও বহুবিবাহ প্রতিরোধ, সমাজের সহিংসতা বন্ধ, বিচার ব্যবস্থায় সহজতর ন্যায় বিচার প্রাপ্তিতে সহায়তা, জনগণকে দুর্নীতি, ঘুষ, দালাল চক্রের হাত থেকে পরিত্রাণ, যুব সমাজকে মাদকদ্রব্য সেবনের হাত থেকে ফিরিয়ে আনার অব্যাহত প্রচেষ্টা, পিছিয়েপড়া অবহেলিত জনগোষ্ঠীদের সার্বিক সহযোগিতা, সামাজিক উন্নয়নে ব্যাপক ভূমিকা রাখতে সক্ষম হয়েছেন।

নুরন্নবী চৌধুরী খোকন বলেন, আমি সবসময় মাদকবিরোধী কার্যক্রম পরিচালনা করি। সরকারি বিধি মোতাবেক উপজেলার সকল কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছি। আমার পিতা মুক্তিযোদ্ধাদের প্রেরণা, মুক্তিযোদ্ধা সংগঠক আলহাজ্ব শামছুল হক চৌধুরীর মর্যাদা কে ধারণ করে জনগনের পাশে থেকে আমি সারা জীবন জনগণের সেবক হিসেবে কাজ করে যাবো। বর্তমান সরকার দেশের উন্নয়ন মূলক কর্মকান্ডে সহায়ক ভূমিকা পালন করছে।

Facebook Comments
custom_html_banner1

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *