1. ashrafali.sohankg@gmail.com : aasohan :
  2. alireza.kg2014@gmail.com : Ali Reza Sumon : Ali Reza Sumon
  3. hrbiplob2021@gmail.com : News Editor : News Editor
রবিবার, ২৫ জুলাই ২০২১, ০৩:১৯ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:-
জাতীয় স্লোগান হিসেবে ‘জয় বাংলা’ ব্যবহারের নির্দেশঃ হাইকোর্ট কিশোরগঞ্জে কোরবানির ডিজিটাল পশুর হাট কুড়িগ্রাম জেলা যুবলীগের উদ্যোগে অন্ধ প্রতিবন্ধীদের মাঝে নগদ টাকা ও খাদ্য বিতরণ কুড়িগ্রাম জেলা ছাত্রলীগের উদ্যোগে বিনামূল্যে শাক-সবজি বাজার উ‌দ্বোধন করিমগঞ্জ থেকে গাঁজা ও নগদ অর্থ’সহ মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করেছে র‍্যাব আশরাফ আলী সোহান একজন তরুন উদ্যোক্তা সব্যসা‌চী লেখক ও ক‌বি ‌সৈয়দ শামসুল হ‌কের সমাধী‌তে কুড়িগ্রাম জেলা ছাত্রলী‌গের শ্রদ্ধা বাংলা’র শিক্ষক গাইছেন হিন্দিতে! কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলা বিএনপি’র যুগ্ম আহবায়ক দানিস আর নেই হিয়া ইলেক্ট্রনিক্সকে অবাঞ্ছিতকরন প্রসঙ্গে কিশোরগঞ্জে বিশাল আকৃতির ষাঁড় নাম তার ভাটির রাজা; কুরবানিতে বিক্রয়ের জন্য প্রস্তুত

নরওয়েতে জনপ্রিয় হ’চ্ছে ইসলাম, দ্রু’ত বেড়ে চলেছে মুসলিম জনসংখ্যা!

রিপোর্টার:
  • সর্বশেষ আপডেট : বুধবার, ১৫ জুলাই, ২০২০
  • ৯৫ সংবাদটি দেখা হয়েছে

মহান আল্লাহর অপরূপ সৃ’ষ্টি নরওয়ে, যেখানে মধ্যরাতেও সূর্যের দেখা মেলে। প্রতিবছর গ্রীষ্ম’কালে পৃথিবীর উত্তর গো’লার্ধের দেশ নরওয়ের কিছু অ’ঞ্চলে দুই থেকে চার মাস পর্যন্ত একটানা সূর্যের আলো বিদ্যমান থাকে এবং রাতের অন্ধকারের পরিবর্তে আকাশে গোধূলির আলো

 

ফুটে থাকে। আবার শীতকালে অ’ঞ্চলটি থাকে অন্ধকারা’চ্ছন্ন। আর এ সময়ই নরওয়ের আকাশকে সাজিয়ে রাখে বর্ণিল আলোর খেলা, যাকে বলা হয় অরোরা বোরিয়ালিস বাসুমেরু প্রভা। সাধারণত সেপ্টেম্বর থেকে মা’র্চের অন্ধকার রাতগু’লোতে নরওয়ের আকাশে

 

 

দেখা যায় এই আলোর খেলা। এ ছাড়া দৃষ্টি’নন্দন বেলাভূমি, তুষারে ঢাকা সুউ’চ্চ পর্বত শ্রেণি, রহস্যময় সমুদ্র খাঁড়িগু’লো নরওয়েকে রূপ দিয়েছে স্বপ্নরাজ্যের মতো। পৃথিবীর সবচেয়ে বড় সুড়’ঙ্গপথটি এখানেই অবস্থিত। ইতিহাস ও বর্ণিল সং’স্কৃতির ধারক হিসেবে সুপরিচিত নরওয়ের শহর এবং নগরগু’লো সর্বজনীন ও

 

নজরকাড়া স্ক্যা’ন্ডিনেভিয়ান স্থাপত্যে ভরপুর। প্রাণবৈচিত্র্যের দিক দিয়েও মহান আল্লাহ এই ভূমিকে সাজিয়েছেন নান্দনিক সব বৈ’শিষ্ট্য দিয়ে। তুষারশুভ্র সুমেরু শিয়াল থেকে শুরু করে বল্গা হরিণ, তিমি, সাদা লেজযুক্ত ঈগল, মেরু ভল্লুক, সি’ন্ধু ঘোটক এবং আরো

 

অনেক ধরনের প্রাণী। বর্তমানে বিশ্বের সবচেয়ে সুখী দেশের তালিকায় প্রথম স্থানে রয়েছে নরওয়ে। সিআইয়ের ওয়ার্ল্ড ফ্যাক্ট বুকের তথ্য মতে, এখানকার জনসংখ্যা প্রায় ৫৩ লাখ ৭২ হাজার ১৯১। জনসংখ্যার দিক দিয়ে মুসলমানদের অবস্থান দ্বিতীয়। কিন্তু দিন দিন সেখানকার সচেতন নাগরিকদের কাছে জনপ্রিয় ধ’র্ম হয়ে উঠছে ইসলাম। উত্তম জীবনপ’ন্থার খোঁজে ইসলাম নিয়েই বেশি

 

গবেষণা করছে নরওয়ের লোকজন। নরওয়েতে ইসলামের সূচনা ১২৬০ সালে, যখন তিউনিশিয়ার সুলতান নরওয়ের রাজা হকন হক’ন্সসনের জন্য মূল্যবান উপহার পাঠিয়েছিলেন; যদিও বিশ শতকের শেষার্ধ পর্যন্ত নরওয়েতে মুসলমানদের জনসংখ্যা উল্লেখযোগ্য ছিল না। পরবর্তী সময় ইসলামের সৌ’ন্দর্যে মোহিত হয়ে ইসলামের

 

প্রতি আকৃষ্ট ‘হতে শুরু করেছে তারা। যুক্তরা’ষ্ট্রের সেন্ট্রাল ইন্টেলিজেন্স এজেন্সির (সিআইএ) পরিসংখ্যান অনুযায়ী ২০১১ সালে নরওয়েতে সরকারিভাবে নিবন্ধিত মুসলিমের সংখ্যা ছিল এক লাখ ২১ হাজার ৯৫। পিউ রি’সার্চ সেন্টারের পরিসংখ্যান অনুযায়ী ২০১০ সালে নরওয়েতে ৩.৭ শতাংশ এবং ২০১৬ সালে ৫.৭ শতাংশ মুসলিম ছিল।

 

নরওয়ের অসলো বিশ্ববিদ্যালয়ের ধ’র্মতত্ত্ব বিভাগের শিক্ষক ও গবেষক ক্যারেন ভোগ বলেন, একসময় নরওয়ের নারীরা মুসলিম পুরুষদের বিয়ে করার মাধ্যমে ইসলাম ধ’র্ম গ্রহণ করত। কিন্তু এখন অবস্থার পরিবর্তন হয়েছে। তারা ইসলাম নিয়ে বেশ অনুস’ন্ধান ও গবেষণা করছে, প্রচুর বইপত্র ও উৎসগ্রন্থ পড়ে এরপর ইসলাম গ্রহণ করছে। নরওয়ের নৃবিজ্ঞান গবেষক লিন্ডা নাওর

 

বলেন, ‘বিশ্ব এখন গ্লোবাল ভিলেজে পরিণত হয়েছে। কোনো কিছু জানার উপায় সহজল’ভ্য হওয়ায় অনেকেই ইসলাম সম্পর্কে জানতে আগ্রহী এবং এতে প্রয়োজনীয় সব ধরনের তথ্য পাওয়া যায়। আমিও ইসলাম নিয়ে দীর্ঘ গবেষণা ও পড়াশোনার পর ইসলামে ধ’র্মান্তরিত হয়েছি। ’ ২০১২ সালে নরওয়ের ইতিহাসে প্রথমবারের মতো সংস্কৃতিমন্ত্রী হিসেবে নিয়োগ পেয়েছেন একজন মুসলিম

 

তরুণী হাদিয়া তাজিক। তাঁকে ম’ন্ত্রী হিসেবে নিয়োগ দেওয়ার পর দেশটির প্রধানমন্ত্রী জেনস স্টেলটেনবার্গ সাংবাদিকদের বলেন, ‘আমর’া নতুন মূল্যবোধ, শক্তি ও ভাবনাগু’লোকে জায়গা করে দেওয়ার জন্য এই সি’দ্ধান্ত নিয়েছি। ’ (রয়টার্স) ‘এটি নবায়ন ও ধা’রাবাহিকতার একটি মিশ্রণ’। হাদিয়া তাজিক লে’বার পার্টির একজন সংসদ সদস্য ছিলেন। তখন তিনি ছিলেন নরওয়ের সবচেয়ে কম বয়স্ক মন্ত্রী। এর আগে ২০০৮ ও ২০০৯

 

সালে তিনি বিচারপতি কোনাট স্টোরবার্গেট মন্ত্রণালয়ের রাজনৈতিক উপ’দেষ্টা হিসেবে কাজ করেছেন। একই স’ঙ্গে মুসলিম মহিলা পুলিশের কর্মক্ষেত্রে হিজাব পরিধান অনুমোদনের সি’দ্ধান্তের ব্যাপারেও গু’রুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছেন তিনি। শুধু নরওয়ে নয়, ইউরোপজুড়েই

 

ইসলামের ছায়াতলে আশ্রয়’গ্রহীতার সংখ্যা দিন দিন বাড়ছে। ইসলামের যেই সৌরভ মানুষকে তার দিকে আকৃষ্ট করছে, তা যদি আমর’া বাস্তবিকই নিজেদের মধ্যে বাস্তবায়ন করতে পারি, তবে আবারও বিশ্বব্যাপী শান্তি প্রতি’ষ্ঠিত হবে, ইনশাআল্লাহ।

খবরটি পছন্দ হলে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরও খবর

All rights reserved © 2021 Newsmonitor24.com
Theme Customized BY IT Rony