নোয়াখালীতে বিসিক কর্মচারী নিখোঁজ হওয়ার তিন দিন পর লাশ উদ্ধার!

ফখরুদ্দিন মোবারক শাহ রিপন,স্টাফ রিপোর্টারঃ

নোয়াখালীর মাইজদীকোর্ট শাখা রূপালী ব্যাংক থেকে বেতন ভাতার টাকা তুলে নিজ বাড়ি যাওয়ার পথে নিখোঁজ হন বাংলাদেশ ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্প কর্পোরেশন (বিসিক) নোয়াখালী সোনাপুর কার্যালয়ের অফিস সহায়ক ইউছুফ মিয়া (৫০)। নিখোঁজ হওয়ার তিন দিন পর বেগমগঞ্জ উপজেলা থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়েছে।

রবিবার সকালে চৌমুহনী চৌরাস্তা এলাকার সড়কের পাশ থেকে অজ্ঞাত একটি লাশ উদ্ধার করে বেগমগঞ্জ থানা পুলিশ। অবশেষে বিকালে বেগমগঞ্জ থানায় গিয়ে নিহতের লাশ সনাক্ত করেন তার ছেলে মাহমুদুল হাছান। নিহত ইউছুফ মিয়া চাটখিল উপজেলার নোয়াখলা ইউনিয়নের সাত্রাপাড়া গ্রামের মৃত লুৎফুর রহমানের ছেলে।

নিখোঁজ ইউছুফের ছেলে মাহমুদুল হাছান রবিন জানান, গত বৃহস্পতিবার দুপুর ১টার দিকে রূপালী ব্যাংক মাইজদী কোর্ট শাখা থেকে ২০ হাজার টাকা তুলে ব্যাংক থেকে বেরিয়ে যান তারা বাবা। ওই টাকা নিয়ে তিনি বাড়ি ফেরার কথা ছিল। কিন্তু তারপর থেকে তিনি আর বাড়ি ফিরে আসেননি। পরিবারের লোকজন অনেক খোঁজাখুঁজি করেও তার কোনো খোঁজ পাননি। এ ঘটনায় শনিবার বিকালে সুধারাম মডেল থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেন রবিন।

রবিন আরো জানান, রবিবার দুপুরে স্থানীয় সাংবাদিকদের মাধ্যমে বেগমগঞ্জ থানায় একটি অজ্ঞাত লাশ উদ্ধারের খবর পেয়ে লাশের ছবি দেখে তার বাবা বলে মনে হয়। পরে রবিন ও তার পরিবারের সদস্যরা বেগমগঞ্জ থানায় গিয়ে ইউছুফের লাশ সনাক্ত করেন।

বেগমগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হারুনুর রশিদ চৌধুরী বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, নিহতের প্যান্টের পকেট থেকে ২০ হাজার টাকা উদ্ধার করা হয়েছে। তার মৃত্যু স্বাভাবিক বলে ধারনা করা হচ্ছে। পরিবার থেকে কোনো অভিযোগ না থাকলে ময়নাতদন্ত ছাড়া নিহতের লাশ পরিবারের কাছে অতি দ্রুত হস্তান্তর করা হবে।

Facebook Comments
custom_html_banner1

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *