নোয়াখালীর সেনবাগে বৃদ্ধাকে হত্যার অভিযোগে গ্রেফতার ৩, লাশ উদ্ধার!!

এফ এম শাহ রিপন,নোয়াখালী প্রতিনিধিঃ

নোয়াখালীর সেনবাগ উপজেলার কাবিলপুর ইউনিয়নের মহিদীপুর গ্রামে ফাতেমা বেগম(৭০) নামের এক বৃদ্ধাকে হত্যার অভিযোগে জাফর(৩২) ,শাহজাহান(৪০) ও ঝানু(৩৫) নামে ৩ সিএনজি চালককে শুক্রবার (২৫ অক্টোবর) সকালে গ্রেফতার করেছে সেনবাগ থানা পুলিশ।

শুক্রবার সকাল ১০ টার দিকে পুলিশ মহিদীপুর গ্রাম থেকে বৃদ্ধার লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালের মর্গে প্রেরন করেছেন।

স্হানীয় এলাকাবাসী ও নিহতের কন্যা শারজাহান নিউজ মনিটরকে জানান, মহিদীপুর উত্তরকানী গ্রামের কবির হোসেনের পুত্র রুবেলের সাথে একই এলাকার খাজুর মেয়ে মা মনির বিয়ে হয় ৭/৮ বছর আগে। এ সুবাদে তারা চট্রগ্রামে বসবাস করে আসছিলো। কয়েকদিন আগে স্বামী স্ত্রীর মধ্যে বনিবনা না হওয়ায় উভয়ে মারামারি করে। বুধবার সকালে মা মনি চট্রগ্রাম থেকে পিতার বাড়ীতে এসে বিষয়টি চাচাদেরকে জানায়।

ওইদিন দুপুর ২টার দিকে চাচারা সংঘবদ্ধ হয়ে দেশীয় অস্ত্র শস্ত্র নিয়ে স্বামী রুবেলের মা,নানী ভাই বোনদের উপর হামলা চালিয়ে রক্তাক্ত জখম করে। এতে ফাতেমা বেগম(৭০) শারজাহান(৪৬) সাবিনা(২২) সুফল(২৪) সাহিদ(১২) দেলোয়ারা বেগম(৫২) ও লিমা(২৪) গুরুত্বর আহত হয়। গুরুতর আহতদের স্হানীয় লোকজন উদ্ধার করে বিভিন্ন ক্লিনিকে ভর্তি করে। বৃদ্ধা ফাতেমাকে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয় সেখানে তার অবস্থার অবনতি হলে বৃহস্পতিবার রাত ১০ টায় চট্রগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে রাত ২ টার দিকে সিসিইউতে ফাতেমা বেগমের মৃত্যুঘটে।

শুক্রবার সকালে চট্রগ্রাম থেকে লাশ নিজ বাড়ীতে নিয়ে এলে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে আসে। পরে নিহতের নাতী সুফল বাদী হয়ে ৬ জনকে আসামী করে সেনবাগ থানায় লিখিত অভিযোগ দিলে পুলিশের এএসআই নাসিরের নেতৃত্বে সঙ্গীয় ফোর্স ৩ জনকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়।
শুক্রবার বিকেলে সেনবাগ থানার ওসি মিজানুর রহমান ৩ জনকে গ্রেফতারের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

Facebook Comments
custom_html_banner1

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *