প’রিচালক ক্র’মাগত জো’র করতে লাগলেন হো’টেলের ঘ’রে গিয়ে।

২০০৫ সা’লে বলিউডে প্রদীপ সরকারের ছবি ‘পরিণীতা’ দিয়ে যাত্রা শুরু করেন বিদ্যা বালান।তবে বলিউডে পা রাখার পর থেকে আর পেছনে ফিরে তাকাতে হয়নি তাকে।

এ’র আগে, যদিও বিদ্যা পেরিয়ে এসেছিলেন কিছু অ’ন্ধকার অ’ধ্যায়।পরিচালক এসেছিলেন আমার কাছে। আমি বলেছিলাম, চলুন কফি শপে গিয়ে বসি। উনি ক্র’মাগত জো’র করতে লা’গলেন, হোটেলের ঘরে গিয়ে কথা বলার জন্য। আমি আমার বাড়ির দরজাটা খুলে দিয়েছিলাম।

পাঁচ মি’নিটে উনি বেরিয়ে গিয়েছিলেন।’বিদ্যা বালান আরও জানান, দক্ষিণের আরও একজন পরিচালক তাকে দেখিয়ে বিদ্যার রূপের সমা’লোচনা করেন। বলেন, এমন দেখতে কেউ কীভাবে ফিল্মের নায়িকা হতে পারেন? এরপর বহুদিন পর্যন্ত বিদ্যা আয়নার সামনে আসতেন না অবসাদে।

পু’রোনো দিনের সেই সব কথা রোমন্থন করেন বিদ্যা বালান।পাশাপাশি তিনি জা’নান, একটি দক্ষিণী ছবিতে অভিনয়ের সময় চিত্রনাট্যে যে ধরনের মশকরার সংলাপ ব্যবহার হয়েছিল, তাতে অস্ব’স্তি হ’চ্ছিল বিদ্যার। এরপরই তিনি ফিল্মটি ছে’ড়ে দেন। পরে ছবির নি’র্মাতারা তাকে আইনি নো’টিশও দেন।পরিচালক এসেছিলেন আমার কাছে।

আ’মি বলেছিলাম, চলুন কফি শপে গিয়ে বসি। উনি ক্র’মাগত জো’র করতে লা’গলেন, হোটেলের ঘরে গিয়ে কথা বলার জন্য। আমি আমার বাড়ির দরজাটা খুলে দিয়েছিলাম। পাঁচ মিনিটে উনি বেরিয়ে গিয়েছিলেন।

Facebook Comments
custom_html_banner1

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *