প্রেমের ফাঁ’দে ফে’লে তরুণীকে ধ’র্ষণ, বিয়ের কথা বলতেই মা’রধর।

না’টোরের সিংড়ায় প্রেমের ফাঁ’দে ফে’লে এক তরুণীকে ধ’র্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। বিয়ে করতে বলায় শা’রীরিকভাবে নি’র্যাতনও করা হয়েছে ওই তরুণীকে।

এ ঘ’টনায় অ’ভিযুক্ত প্রেমিক জিহাদকে গ্রে’ফতার করে কা’রাগারে পাঠিয়েছে পুলিশ।গ্রে’ফতার জিহাদ উপজে’লার তেরোবাড়িয়া গ্রামের আব্দুল আলীমের ছেলে ও সিংড়া বাজারের কসমেটিক ব্যবসায়ী বলে জানা গেছে।শুক্রবার (২১ ফেব্রুয়ারি) সিংড়া উপজে’লা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে গিয়ে দেখা যায়, ওই তরুণী নারী ওয়ার্ডের মেঝেতে শুয়ে কাতরাচ্ছেন।

সিং’ড়া থানা পুলিশ ও হাসপাতাল সূত্রে জানা যায়, প্রেমের ফাঁ’দে ফে’লে সিংড়ার ওই তরুণীকে একাধিকবার ধ’র্ষণ করেন প্রতিবেশী যুবক জিহাদ। গত বুধবার (১৯ ফেব্রুয়ারি) জিহাদের দোকানে গিয়ে বিয়ের প্রস্তাব দেন ওই তরুণী।

এ’তে জিহাদ রাগান্বিত হয়ে তাকে বেধরক মা’রপিট করে পা’লিয়ে যান।আ’হত ওই তরুণী অভিযোগ করে বলেন, বিয়ের প্রলোভন দিয়ে আমাকে শুধু ব্যবহার করা হয়েছে। বিয়ের জন্য মোটা অঙ্কের টাকাও দাবি করেছে জিহাদ। আমি একটা মধ্যবিত্ত পরিবারের মেয়ে।

এ’তগুলো টাকা কোথায় পাব।আ’হত ওই তরুণী অভিযোগ করে বলেন, বিয়ের প্রলোভন দিয়ে আমাকে শুধু ব্যবহার করা হয়েছে। বিয়ের জন্য মোটা অঙ্কের টাকাও দাবি করেছে জিহাদ। আমি একটা মধ্যবিত্ত পরিবারের মেয়ে। এতগুলো টাকা কোথায় পাব।মা’মলার ত’দন্তকারী কর্মকর্তা সিংড়া থানা পুলিশের উপপরিদর্শক (এসআই) মাহবুব হোসেন জানান, এ ঘটনায় থানায় ধ’র্ষণ মা’মলা হয়েছে।

অ’ভিযুক্ত যুবককে গ্রে’ফতার করে কা’রাগারে পাঠানো হয়েছে। এখন অভিযোগকারী তরুণীর ডাক্তারি রিপোর্ট হাতে পেলেই প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Facebook Comments
custom_html_banner1

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *