ব’উয়ের সা’থে ঝ’গড়া করে নিজের লিঙ্গ কে’টে ফেলল যুবক।

ব’উয়ের সাথে ঝ’গড়া করে ভাইয়ের খোঁজে ফরিদপুরের সদরপুর উপজে’লার খালেক (৩৫) নামে এক যুবক ঠাকুরগাঁওয়ের হরিপুর উপজে’লায় এক আত্মীয়ের বাসায় এসেছিলো।

গ’ত ক’য়েকদিন ধরে রাণীশংকৈল উপজে’লার বিভিন্ন স্থানে উদভ্রান্তের মতো ঘুরে বেড়াতে দেখেছে উপজে’লাবাসী।

এ’রমধ্যে বু’ধবার (৬ মে) সকালে তাকে রাস্তার পাশে লিঙ্গ কর্তনসহ র’ক্তাক্ত অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখে এলাকাবাসি।

প’রে পুলিশকে খবর দেওয়া হলে পুলিশ গিয়ে তাকে উ’দ্ধার করে রাণীশংকৈল উপজে’লা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে।

সে’খানে তা’র অবস্থার অবনতি হলে রাণীশংকৈল হাসপাতাল থেকে ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতালে রেফার্ড করা হয়।

ব’র্তমানে যু’বকটি সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

লি’ঙ্গ ক’র্তনকারি যুবকটি মা’নসিক ভারসাম্যহীন উল্লেখ করে রাণীশংকৈল থানার পুলিশ পরিদর্শক (ত’দন্ত) খায়রুল আনাম ডন জানান, তাকে বেশ কয়েকদিন ধরে উপজে’লার বিভিন্ন স্থানে ঘোরাঘুরি করতে দেখেছে উপজে’লাবাসি।

আ’জ সে নিজেই নিজের লিঙ্গ কর্তন করে রাস্তার পাশে র’ক্তাক্ত অবস্থায় পড়েছিলো।

প’রে স্থা’নীয়রা থানায় খবর দিলে পুলিশ গিয়ে তাকে উ’দ্ধার করে হাসপাতালে পাঠায়।

তি’নি জানান, তাকে জি’জ্ঞাসাবাদ করা হলে সে তার নাম খালেক বলে জানায় এবং তার বাড়ী ফরিদপুর জে’লার সদরপুর উপজে’লার নন্দলালপুরে।

এছা’ড়া আর সে কিছুই বলতে পারেনি।

হা’সপাতালে চি’কিৎসাধীন যুবকটিকে এ বি’ষয়ে জানতে জি’জ্ঞাসাবাদ করা হলে তার বাড়ী ফরিদপুর, তার মাথায় সমস্য আছে, বাড়ীতে বউয়ের সাথে রাগ করে এসেছে, ভাইকে খুঁজতে এসেছে- এসব উলট-পালট কথাবার্তা বলে।

তি’নি জা’নান, তাকে জি’জ্ঞাসাবাদ করা হলে সে তার নাম খালেক বলে জানায় এবং তার বাড়ী ফরিদপুর জে’লার সদরপুর উপজে’লার নন্দলালপুরে।

এ’ছাড়া আর সে কিছুই বলতে পারেনি।

হা’সপাতালে চি’কিৎসাধীন যুবকটিকে এ বি’ষয়ে জানতে জি’জ্ঞাসাবাদ করা হলে তার বাড়ী ফরিদপুর, তার মাথায় সমস্য আছে, বাড়ীতে বউয়ের সাথে রাগ করে এসেছে, ভাইকে খুঁজতে এসেছে- এসব উলট-পালট কথাবার্তা বলে।

এ’দিকে পরিচয়হীন অবস্থায় মা’নসিক ভারসাম্যহীন যুবককে নিয়ে বিপাকে পড়েছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

Facebook Comments
custom_html_banner1

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *