1. ashrafali.sohankg@gmail.com : aasohan :
  2. alireza.kg2014@gmail.com : Ali Reza Sumon : Ali Reza Sumon
  3. hrbiplob2021@gmail.com : News Editor : News Editor
শুক্রবার, ০৭ অক্টোবর ২০২২, ০৯:৪৭ অপরাহ্ন
শিরোনাম:-
জাতীয় স্লোগান হিসেবে ‘জয় বাংলা’ ব্যবহারের নির্দেশঃ হাইকোর্ট পাগলা মসজিদের এবার মিলল ১৫ বস্তায় ৩ কোটি ৮৯ লাখ ৭০ হাজার ৮৮২ টাকা কিশোরগঞ্জ জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি’র দায়ীত্ব থেকে শরীফকে অব্যাহতি আনন্দ উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে শেষ হলো SSNIMC এর সাংস্কৃতিক ও ক্রীড়া প্রতিযোগিতা আপনি কি রোগে ভুগছেন? দেখে নিন কোন রোগের জন্য কোন ডাক্তার দেখাবেন- কিশোরগঞ্জে উন্নত জাতের কচু ফসল ও উৎপাদন কলাকৌশল শীর্ষক প্রশিক্ষণ নারী সাংবাদিক মিতু’র বাড়ির রাস্তায় ঘর নির্মাণ, বাঁধা দেওয়ায় প্রাণনাশের হুমকি নিকলীতে প্রভাবশালীর হাতে সাংবাদিক লাঞ্ছিত থানায় অভিযোগ নান্দাইলে টাকা দিল দেড় লক্ষাধিক,পেল না সেচ সংযোগ ৪৮ বোতল বিদেশী মদ ও গাঁজাসহ তাড়াইল থানা পুলিশের হাতে আটক ৫ “মেঘ বর্ষণ” সমাজ কল্যাণ সংস্থা’র মেধাবী ও অসহায়দের আর্থিক সহায়তা প্রদান

বাংলাদেশে কোরআনে বর্ণিত তীন গাছে ফল ধরেছে,দর্শনার্থীদের ভিড়।

রিপোর্টার:
  • সর্বশেষ আপডেট : শনিবার, ৩০ মে, ২০২০
  • ১১৭ সংবাদটি দেখা হয়েছে

২০১১ সা’লে মি’সর থেকে খুলনার বটিয়াঘাটা উপজেলার জলমায় একটি তীন ফলের গাছ এনেছিলেন আ’বু মুহাম্ম’দ আসসাওয়াদফি আল ফিকাহ নামের এক ব্যক্তি।

শ’খের বসে আ’না সেই গাছটি জলমার দাওহাতুল খাইর কমপ্লেক্স পরিচালিত সোসাইটি অব সোস্যাল রিফর্ম স্কুলের আ’ঙ্গিনায় রোপণ করা হয়।

দা’ওহাতুল খা’ইর কম’প্লেক্স এর প’রিচালক সুফি সালাইমান মাসুদ গাছটি রোপণ করেন।ধারণা করা হয়েছিল মরুভূমির এই গাছ বাংলাদেশের মাটিতে টিকবে না।

কি’ন্তু সবার ধা’রণাকে ভু’ল প্রমাণিত করে গত ৮ বছরে তরতর করে বড় হয়েছে গাছটি।ফলও ধরেছে এর।

স্থা’নীয়দের দাবি, এ গা’ছ বাংলাদেশে এই একটিই আছে। গত কয়েক বছর ধরেই গাছটি দেখতে দূর-দূ’রান্ত থে’কেলোক ছুটে আসছেন।এর কারণ এই সেই তীন গাছ যার নামে পবিত্র কো’রানে একটি সূরাই নাযিল হয়েছে।

এই তী’নের না’মে মহান আল্লাহ তায়ালা শপথও করেছেন।তাই মুসলমানদের কাছে এই তীন গাছ ও এর ফল একটু ভিন্ন অর্থ বহন করে।

সো’সাইটি অ’ব সো’স্যাল রিফর্ম স্কুলের প্রধান শিক্ষক মো. মাসুমবিল্লাহ বলেন, তীন গাছকে দেখতে অনেকেই আসছেন। বিশেষকরে যখন ফল ধরে তখন স্কুলের শিক্ষার্থী ও অভিভাবকরাসহ দশনার্থী বেড়ে যায়।

উল্লেখ্য, কো’রআনের ৩০ত’ম পা’রার ৯৫ নম্বর সূরার প্রথম আয়াত ‘ওয়াত্তীনি ওয়াযাইতূনি। বর্ণিত সূরায় আল্লাহতায়ালা তীন গাছের নামে শপথ করেছেন।

সূ’রার প্রথম শ’ব্দ তী’ন অনুসারে এ সূরার নামকরণ করা হয়েছে- সূরা আত-তীন। তীনের বাংলা অর্থ আঞ্জীর বা ডুমুর।

ম’ধ্যপ্রাচ্য এবং পশ্চিমএশিয়ায় এ ফলের উৎপাদন বা’ণিজ্যিকভাবে করা হয়।সৌদি, কুয়েত, মিসরসহ আফগানিস্তান থেকে প’র্তুগাল পর্যন্ত এই ফলের বাণিজ্যিক চাষহয়ে থাকে।

দাও’হাতুল খা’ইর কমপ্লেক্স এর প্রশাসনিক কর্মকর্তা সানোয়ার হুসাইন বলেন, খুলনার আবহাওয়ায় মধ্যপ্রাচ্যের এই গাছটি অন্যান্যগাছের মতোই বেড়ে উঠেছে।গাছটিতেও ফলও ধরেছে। গাছটির ফল আমি খেয়েছি।

এটি অ’নেক সুস্বাদু।ফলের আকার ডুমুরের চেয়ে বড়, খেতে মিষ্টি ও রসালো বলে জানান তিনি।

Facebook Comments Box

খবরটি পছন্দ হলে শেয়ার করুন

এই ক্যাটাগরির আরও খবর

All rights reserved © 2021 Newsmonitor24.com
Theme Customized BY IT Rony