বি’ড়ি-সিগারেটের উ’ৎপাদন ও বিক্রি বন্ধ চেয়ে সাবের হোসেন চৌধুরীর চিঠি।

প্রা’ণঘা’তী ক’রোনাভা’ইরাসেের সং’ক্র’মণে বি’পর্যস্ত বিশ্ব। দেশে দেশে চলছে লকডাউন। এখনও এর কোন প্রতিষেধক আবি’ষ্কার হয়নি।এখন পর্যন্ত দেশে মোট ক’রোনা আ’ক্রান্ত হয়েছে ১৩ হাজার ১৩৪ জন। মৃ’ত্যু হয়েছে ২০৬ জনের।প্রতিদিনই বাড়ছে মৃ’ত্যু ও আ’ক্রান্তের সংখ্যা। এই রকম পরিস্থিতিতেও শিল্প ম’ন্ত্রণালয়ের অনুমতি নিয়ে এবং এটি ছড়ানোর পেছনেও তাদের ভূমিকা রয়েছে বলে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার পর্যবেক্ষণে বলা হয়েছে।

সাংসদ সা’বের হোসেন চৌধুরী শিল্প ম’ন্ত্রণালয়ের এমন অনুমতি প্রত্যাহারের আহ্বান জানিয়ে দেশে ক’রোনা পরিবেশ ও দু’র্যোগ ব্যবস্থা ম’ন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সং’সদীয় স্থায়ী কমিটির চেয়ারম্যান এবং পরিকল্পনা ম’ন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সং’সদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য।

গত ২০ এ’প্রিল স্বাস্থ্য ম’ন্ত্রণালয়ে পাঠানো এক চিঠিতে তিনি এমনই দাবি জানিয়েছেন।চিঠিতে সাবের হোসেন চৌধুরী উল্লেখ করেছেন, ক’রোনাভা’ইরাসেের সং’ক্র’মণ প্রতিরোধে ভারত ১৫ এপ্রিল মদ, সিগারেট বিক্রির ও’পর শক্ত নি’ষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে। বাংলাদেশেও যখন সব ধরনের শিল্পকারখানা এমনকি গার্মেন্টসও বন্ধ ছিল,সেই সময়ে শিল্প ম’ন্ত্রণালয় সিগারেট উৎপাদন, বিতরণ ও বিক্রির যে অনুমতি দিয়েছে, তা বিস্ময়কর ও হতাশাজনক।

১৯৫৬ সালের আ’ইনের কথা বলে সিগারেট কোম্পানিগুলো অহেতুক সুবিধা নিচ্ছে। চিঠিতে সাংসদ সাবের হোসেন পরিস্থিতি স্বাভাবিক হওয়ার পর সং’সদে এই আইন সংশোধনের জন্য উত্থাপন করতেও অনুরোধ করেছেন।

Facebook Comments
custom_html_banner1

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *