1. ashrafali.sohankg@gmail.com : aasohan :
  2. alireza.kg2014@gmail.com : Ali Reza Sumon : Ali Reza Sumon
  3. hrbiplob2021@gmail.com : News Editor : News Editor
সোমবার, ০৬ ডিসেম্বর ২০২১, ০১:৫৬ অপরাহ্ন
শিরোনাম:-

বে’শি বুঝলে টাকাই পাবেন না’ বি’ধবাকে ধ’মক ব্যাংক ক’র্মকর্তার।

রিপোর্টার:
  • সর্বশেষ আপডেট : বৃহস্পতিবার, ১৪ মে, ২০২০
  • ৪২ সংবাদটি দেখা হয়েছে

বি’ধবা গৃ’হপরিচারিকা আখিরন নেছা সোমবার সোনালী ব্যাংক ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ শাখায় গিয়েছিলেন স’রকারের দেওয়া বি’ধবা ভাতা’র টাকা উত্তোলন করতে। তার পাওনা ৪৫ শত টাকা। ব্যাংক কর্তৃপক্ষ বইতে ৪৫ শত টাকা প্রদান লিখলেও তার হাতে তু’লে দিয়েছিলেন ৩ হাজার টাকা।

বা’কি টাকার কথা জানতে চাইলে বলা হয়েছে বেশি বুঝলে মোটেও পাবেন না। একইভাবে কদবানু এর হাতেও ৪৫ শত টাকার পরিবর্তে দেওয়া হয়েছে ৩ হাজার। তাকেও বলা এই টাকা নিলে নেন, না নিলে চলে যান।প্রসঙ্গত, ঝিনাইদহ কালীগঞ্জ উপজে’লা সমাজ সেবা অফিসের মাধ্যমে ৪০০৯ জন বি’ধবা ভাতা, ৮৪০০ জন বয়ষ্ক ভাতা ও ২১৭৭ জন প্র’তিবন্ধী ভাতা পেয়ে থাকেন।

উপজে’লা সমাজসেবা কর্মকর্তা মোঃ কৌশিক খান জানান, চলতি বছরের জানুয়ারি থেকে জুন পর্যন্ত তাদের বরাদ্ধ সব চলে এসেছে। সোমবার কালীগঞ্জ পৌ’রসভা ও ৩ টি ইউনিয়নের ভাতাপ্রাপ্তদের মাঝে টাকা বিতরণ করা হয়েছে। যদিও ওই দিন পৌ’রসভা এলাকায় ভাতা বিতরনের কথা না। এই পৌর এলাকায় অ’নিয়মটা হয়েছে। তিনি আরো জানান, মাসে বিধবা ভাতা ৫০০/=, বয়ষ্ক ভাতা ৫০০/= ও প্রতিব’ন্ধীরা ৭৫০/= টাকা করে পেয়ে থাকেন।যাদের টাকা কম দেওয়া হয়েছে তাদের একজন কদবানু (৮০)।

ব’য়সের ভারে এখন সোজা হয়ে দাড়াতে পারেন না। কালীগঞ্জ শহরের আড়পাড়া এলাকায় মাত্র ৪ শতক জমির উপর তার টিনের চা’লায় বসবাস। স্বামী গোলাম রসুল আনুমানিক ৪৫ বছর পূর্বে মা’রা গেছেন। সেই থেকে তিনি বিভিন্ন মানুষের বাড়িতে রান্নার কাজ করে সংসার চালান। তার বড় ছেলে আসাদুল ইসলাম বাদাম বিক্রি করেন, ছোট ছেলে সাইদুল ইসলাম চা বিক্রেতা। একমাত্র মেয়ে আকলিমা খাতুনকে বিয়ে দিয়েছেন। তিনি জানান, ছেলেদের ক’ষ্টের সংসার।

এ’ই ভাতা দিয়ে ঔ’ষধপত্র কিনতে হয়। সোমবার টাকা তুলতে গেলে ৪৫ শত টাকার পরিবর্তে ৩ হাজার টাকা দেওয়া হয়েছে। এটার কারন জানতে চাইলে বলা হয়েছে নিলে নেন, না নিলে চলে যান। কদবানু কথাগুলো বলার সময় কা’ন্নায় ভেঙ্গে পড়েন, বলেন তার সঙ্গে খা’রাপ ব্যবহার করা হয়েছে।ঝিনাইদহ-৪ আসনের সাংসদ আনোয়ারুল আজীম আনার জানান, সোমবার দুপুরে তার কাছে খবর যায় অ’সহায় মানুষের টাকা আত্বাসাত করা হচ্ছে।

এ’ই খবর পেয়ে তিনি ব্যাংকে ছুটে আসেন। সেখানে গিয়ে ঘটনা সঠিক দেখে উপস্থিত কমপক্ষে ১৫ জনের কথা শুনে তাদের বাকি ১৫ শত করে টাকা ফেরতের ব্যবস্থা করেন। ব্যাংক কর্তৃপক্ষ তাৎক্ষনিক ভু’ল বলে টাকা ফেরত দেন। সাংসদ আরো জানান, এখানে এসে জানতে পারেন ব্যাংকের নিরাপত্তা কর্মীও ভাতা নিতে আসা অ’সহায় নারীদের নিকট থেকে জনপ্রতি ১ শত করে টাকা নিচ্ছেন। এছাড়াও প্রতিব’ন্ধীদের সব টাকা দেওয়া হচ্ছে না। এসকল অনিয়মের বি’ষয়ে তিনি ব্যাংকের উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলবেন বলে জানান। তাৎক্ষনিক ভাবে ব্যাংকের শাখা ব্যবস্থাপককে বি’ষয়গু’লি অবহিত করে পদক্ষেপ নেওয়ার জন্য বলেছেন।

এ বি’ষয়ে ব্যাংকের শাখা ব্যবস্থাপক শামীম রেজা জানান, অনেক কাজের মধ্যে এই কাজটি করতে গিয়ে তার অফিসাররা ভু’ল করেছেন। পরে সব সমাধান করে ফেলা হয়েছে। ‘তারপরও বি’ষয়টি নিয়ে পদক্ষেপ নেওয়া হবে বলে জানান।

খবরটি পছন্দ হলে শেয়ার করুন

এই ক্যাটাগরির আরও খবর

All rights reserved © 2021 Newsmonitor24.com
Theme Customized BY IT Rony