ভাওয়াইয়া শিল্পীদের মানবেতর জীবন যাপন, চাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রীর সুদৃষ্টি

এজি লাভলু, স্টাফ রিপোর্টার

আধুনিকতার সঙ্গে তাল মেলাতে না পেরে এমনিতেই ধুঁকছিল উত্তরের ভাওয়াইয়া শিল্পীরা। তার ওপর এখন আবার করোনাভাইরাসের কারণে লকডাউন। এই অবস্থায় ধ্বংসের মুখে পৌঁছে গিয়েছে এক সময়ের বিখ্যাত এই সংস্কৃতি। প্রথমে ১ মাস এবং তারপর সেই সময়সীমা আরও বেড়ে যাওয়ায় দীর্ঘ হচ্ছে লকডাউন পর্ব। ভাওয়াইয়া শিল্পীদের বিভিন্ন প্রোগ্রাম একদিকে যেমন সম্পূর্ণ বন্ধ হয়ে গিয়েছে, তেমনই হঠাৎ করে উপার্জনহীন হয়ে পড়ায় এক প্রকার অনাহারে অর্ধাহারেই দিন কাটছে উত্তরবঙ্গের ভাওয়াইয়া শিল্পীদের।

এমন পরিস্থিতিতে প্রধানমন্ত্রীর ও সংস্কৃতি মন্ত্রণালয়ের সুদৃষ্টি চান তারা। কুড়িগ্রামের জনপ্রিয় ভাওয়াইয়া শিল্পী শফিকুল ইসলাম শফি তার আকুতি জানিয়ে ফেসবুক ওয়ালে সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মাননীয় প্রতিমন্ত্রী বরাবর একটা চিঠি পোস্ট পোস্ট করেন।

মাননীয় প্রতিমন্ত্রী
সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়
আপনার সদয় দৃষ্টি আকর্ষণ করছি, আমরা জানি আপনি একজন সংস্কৃতি পরিবারের মানুষ, আপনি ভালো করেই জানেন সংস্কৃতিচর্চার মানুষ গুলো কেমন হয়, তাঁরা১৯৫২ সালের ভাষা আন্দোলন থেকে শুরু করে আজ অবধি দেশের সংকট ময় মুহুর্ত গুলোতে তাঁদের কি অবদান রয়েছে। আজ আমরা বড় অসহায়, অনেকেই রয়েছি শুধু গান গেয়ে যন্ত্রবাজিয়ে মানুষকে বিনোদন দিয়ে যা পাই তাই দিয়ে আমরা সংসারের বোঝা বহন করে থাকি। আজ দেশের এই দুর্যোগকালে আমাদের দিকে কেউই তাকায় নাই।অনেকে শুধু তাকিয়ে আছি আমাদের দেশমাতা মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর মুখের পানে, কিন্তু সেখান থেকে যখন কোন আশার বাণী পাইনা তখন হতাশ হয়ে যাই। আপনি আমাদের একমাত্র মাধ্যম মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নজরে আমাদেরকে উপস্থাপন করার। আপনার কাছে বিনীত আবেদন আমাদের সকল দুস্থশিল্পীদের সরাসরি মোবাইল একাউন্টে আপনার সদয় প্রণোদনা ব্যবস্থা করলে, আমরা অন্তত কিছুদিন জীবন বাঁচাতে পারবো। জানিনা এই পোষ্ট আপনার চোখে পরবে কিনা, যদি কোনভাবে আপনার চোখে পড়ে আমরা নিশ্চয়ই একটা বেঁচে থাকার পথ খুঁজে পাব। আপনার এবং আমাদের মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সুস্থজীবন কামনা করি।।

আবেদনকারী
সকল দুস্থ শিল্পীদের পক্ষে
শফিকুল ইসলাম শফি
কন্ঠশিল্পী
বাংলাদেশ বেতার এবং বাংলাদেশ টেলিভিশন।

পল্লবী সরকার মালতি
কণ্ঠশিল্পী
বাংলাদেশ বেতার এবং বাংলাদেশ টেলিভিশন।

Facebook Comments
custom_html_banner1

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *