1. ashrafali.sohankg@gmail.com : aasohan :
  2. alireza.kg2014@gmail.com : Ali Reza Sumon : Ali Reza Sumon
  3. hrbiplob2021@gmail.com : News Editor : News Editor
রবিবার, ১১ এপ্রিল ২০২১, ০২:০৪ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:-
জাতীয় স্লোগান হিসেবে ‘জয় বাংলা’ ব্যবহারের নির্দেশঃ হাইকোর্ট কিশোরগঞ্জ র‍্যাব ১৪ এর অভিযানে প্রাইভেটকারসহ তিন গাঁজা ব্যবসায়ী আটক কিশোরগঞ্জে করোনায় মারা গেলেন মামাখ্যাত সৈয়দ বাশার কিশোরগঞ্জে বিএনপি-পুলিশের ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া কিশোরগঞ্জে আওয়ামী লীগ অফিস ভাংচুরের ঘটনায় মামলা অনলাইনে জ্ঞানচর্চার অন্যতম প্ল্যাটফর্ম জ্ঞানের জগৎ আওয়ামীলীগ নেতা ও বিসিবি’র পরিচালক সৈয়দ আশফাকুল ইসলাম টিটু করোনায় আক্রান্ত শবে বরাত : যা করতেন নবীজী (সা.) কিশোরগঞ্জে হরতাল সমর্থকদের আওয়ামী লীগ অফিসে অগ্নি সংযোগ কিশোরগঞ্জ শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে যক্ষা দিবস পালন কিশোরগঞ্জে ট্রেনের দুই টিকেট কালোবাজারিকে গ্রেপ্তার করেছে র‍্যাব

মা’নসিক চিন্তা দূর করতে হযরত মুহাম্মদ (সা.) যে খাদ্যের কথা বলেছেন।

রিপোর্টার:
  • সর্বশেষ আপডেট : বৃহস্পতিবার, ২৫ জুন, ২০২০
  • ১৮ সংবাদটি দেখা হয়েছে

হা’দিস শ’রীফে এসেছে, হযরত আয়েশা (রা.) বলেন, হ’যরত মুহাম্মদ (সা.) এর পরিবারের লোকেদের জ্বর হলে, তি’নি দুধ ও ময়দা সহযোগে তরল পথ্য তৈ’রি করার নির্দেশ দিতেন।

রা’সুলুল্লাহ (সা.) বলেন, এটা দুশ্চিন্তাগ্রস্ত মনে শক্তি যোগায় এবং রোগীর মনের ক্লেশ ও দুঃখ দূর করে, যে’মনতোমাদের কো’ন নারী পানি দ্বারা তার চেহারার ময়লা দূর করে। সহীহুল বুখারী ৫৪১৭, মুসলিম ২২১৬, তিরমিযী ২০৩৯, ১/৩৪৪৫।

মা’নসিক অ’বসাদ দূর- মানসিক অবসাদ দূর করতে হাদীস শরীফে একটি টোনিকের কথা বলা হয়েছে। যা শ’তভাগ কা’র্যকরী টোনিক হিসেবে হাদিসে বর্ণনা করা হয়েছে।

অন্য এ’ক হা’দীসে এসেছে, আয়েশা (রা.) বলেন, হযরত মুহাম্মদ (সা.) বলেছেন, অপ্রিয় কিন্তু উপকারী বস্ত্তটি তোমরা অবশ্যই গ্রহণ করবে। তা হলো তা’লবীনা অর্থাৎ হাসা ( দুধ ও ময়দা সহযোগে প্র’স্ত্তত তরল পথ্য)।তিনি বলেন, রাসূলুল্লাহ (সা.) এর পরিবারের কেউ অসুস্থ হয়ে পড়লে হাসা-এর পাতিল চুলার উপর থাকতো, যাবত না রোগী সুস্থ হতো অথবা মারা যেতো।

২/৩৪৪৬। সহী’হুল বু’খারী ৫৪১৭, মুসলিম ২২১৬, তিরমিযি ২০৩৯, আহমাদ ২৩৯৯১, ২৪৬৯৩, ২৫৫১৯আরো পড়ুন বিয়ে করতে কনে গেলেন বরের বাড়ি!বি’য়ের অনুষ্ঠানে কনের বাড়িতে আগে যান ব’রযাত্রী। এটাই স্বাভাবিক। কিন্তু প্রচলিত এই নিয়ম ভেঙ্গে হলো ব্যতিক্রম বিয়ে।

ব’রের বা’ড়িতে কনে যাত্রী হাজির হলেন বরকে বিয়ে করে নিয়ে যেতে। বিষয়টি অবাক হওয়ার মতো হ’লেও শনিবার এমন ঘটনা ঘটেছে মেহেরপুরের গাংনী পৌরসভার চৌগাছা গ্রামে।

অবশ্য এ বি’ষয়টি নি’য়ে এলাকায় মুখরোচক গল্প শোনা গেলেও বিষয়টিকে অনেকে স্বাগত জানিয়েছেন।কনে চুয়াডাঙ্গার হাজরাহাটি গ্রামের কা’মরুজ্জামানের মে’য়ে খাদিজা আক্তার খুশি কুষ্টিয়া ইসলামিয়া কলেজে স্নাতকের শিক্ষার্থী এবং বর গাংনী উপজেলার চৌগাছার কমরেড আব্দুল মাবুদের ছেলে তরিকুল ইসলাম জয় একজন ব্যবসায়ী।

স্থা’নীয়রা জা’নান, শনিবার দুপুরে ৭টি মাইক্রোবাস ও ৩০টি মোটরসাইকেল বহর নিয়ে কনে এসে না’মেন বরের বাড়ির গেটের সামনে।

বি’য়ের বহর গে’টের কাছে আসতেই অন্যরকম উত্তেজনা সৃষ্টি হয়। বাড়ির গেটের সামনে মা’ইক্রোবাস থেকে নামলেন লাল বেনারসি শাড়ি পরা কনে। এ সময় কনেকে ফুল ও মিষ্টি মুখ করিয়ে বরণ করে নেন বরপক্ষ।এরপর শুরু হয় বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা।

ইসলামী শরীয়াহ অনুযায়ী একজন মাওলানা তাদের দু’জনকে কবুল পড়ান। প্রচলিত আইন অনুযায়ী বিয়ের রেজিস্ট্রি সম্পন্ন করান স্থানীয় কাজি। এরপরে বর পক্ষের দাওয়াতী আত্মীয় স্বজন ও কনে যা’ত্রীদের ভুড়িভোজ করানো হয়।

বি’য়ের আ’য়োজন প্রসঙ্গে বরের বাবা কমরেড আব্দুল মাবুদ বলেন, নারীর অধিকার প্রতিষ্ঠার জন্য আ’মাদের অনেক কিছুই করার আছে। মুখে আমরা বললেও তা বাস্তবায়ন করছি কতটুকু?

তাই আ’মি এ আ’য়োজনের মধ্য দিয়ে নারী-পুরুষের সমতার বিষয়টি সামনে আনতে চেয়েছি।বাংলাদেশ ওয়ার্কাস পার্টির কেন্দ্রীয় কমিটির পলিট ব্যুরোর সদস্য আব্দুল মাবুদ ওই বিয়েতে উপস্থিত ছিলেন। তি’নি বলেন, না’রী পুরুষের যে বৈষম্য আমাদের সমাজে রয়েছে সেটা দুর হবে যদি এমনভাবে বিয়ে হয়।

তা’ছাড়া বি’য়ে বা’ড়িতে এতদিন যে কনে পক্ষের একটা বিশাল খরচ হয়ে আসত সেটা দূর হবে।আগেকার বিয়ের রীতি ভেঙ্গে এখানে যে ব্যাতিক্রমী বি’য়ের আ’য়োজন করা হয়েছে তাকে আমি সাধুবাদ জানাই।

বি’কেলে ব’র তরিকুল ইসলাম জয়কে নিয়ে কনে খাদিজা আক্তার খুশি চলে যান তার বাবার বাড়িতে। সে’খানে কয়েকদিন কাটানোর পর কনেকে সাথে নি’য়ে বর ফিরে আসবেন নিজের বাড়িতে।নিজের বিয়ের এমন আয়োজন সম্পর্কে কনে খাদিজা আক্তার খুশি বলেন, নারী-পুরুষের সমান অধিকার হিসেবে একজন মেয়ে একজন ছেলেকে বিয়ে করতে তার বাড়িতে যেতে পারেন, তা কখনো বাস্তবায়ন হয়নি।

সেই বা’ধার বৃ’ত্ত ভেঙে আমরা শুরু করেছি। আশা করছি আরো অনেকেই এখন এটি করবেন।

Facebook Comments Box

খবরটি পছন্দ হলে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরও খবর
সম্পাদক: আলী রেজা সুমন
All rights reserved © 2021 Newsmonitor24.com
Theme Customized by Le Joe