মো’বাইল কি’নতে কিশোরের নৃ’শংসতা !

মো’বাইল ফোন কিনতে ২০ হাজার টাকা দরকার ছিল কিশোর সিয়াম হোসেন মিঠুর (১৫)। এজন্য প্রতিবেশির শি’শুকে অপহণের পর মু’ক্তিপণ আদা’য়ের পরিকল্পনা করে। একাজ করতে গিয়ে মিঠু জ’বাই করে হ’ত্যা করেছে মোবাশ্বের হাসান (৫) নামের শি’শুকে।

সূ’ত্র জানায়, ভাউলাগঞ্জ ইউনিয়নের নায়েকপাড়া এলাকার মোহাম্মদ আলমের ছেলে মোবাশ্বের হাসান। পাঁচ বছরের এ শি’শুকে শুক্রবার দুপুর থেকে পাওয়া যাচ্ছিলনা। স্থানীয় কয়েকজন নারী দুপুরে শি’শুটিকে প্রতিবেশি কিশোর মিঠুর সাথে বাইসাইকেলে যেতে দেখেছেন বলে দাবি করেন।

এ অ’বস্থায় মিঠুকে ডেকে জিজ্ঞাসা করা হলে সে ঘটনা অস্বীকার করে।নি’খোঁজ হাসানের বাবা শনিবার দেবীগঞ্জ থানায় একটি জি’ডি করেন। রাতেই স’ন্দেহবশত স্থানীয়রা মিঠুকে পুলিশে সোপর্দ করেন। পরে জি’জ্ঞাসাবাদে মিঠু শি’শু হ’ত্যার দায় স্বীকার করে।

হা’সানকে ডেকে নিয়ে গ’লা কে’টে হ’ত্যার পর লা’শ চার কিলোমিটার দূরে একটি বেতবাগানে ফে’লে রাখা হয়েছে বলে মিঠু জানায়।পরে রবিবার সকালে পুলিশ নীলফামারী জে’লার ডোমার উপজে’লার অর্ন্তভূক্ত বেতবাগান থেকে শি’শুর লা’শ উ’দ্ধার করে। শি’শু হ’ত্যার ঘটনায় আ’টক কিশোর সিয়াম হোসেন মিঠু একই এলাকার আশিকুর রহমান স্বপনের ছেলে।

মি’ঠু ভাউলাগঞ্জ হাজী আজহার আলী উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেনীর ছাত্র।দেবীগঞ্জ থানার ওসি রবিউল হাসান স’রকার বলেন, ‘আ’টক মিঠুর দেয়া তথ্যে লা’শ উ’দ্ধার হয়েছে। যে ধা’রালো দা দিয়ে শি’শুটিকে হ’ত্যা করা হয়েছে তা উ’দ্ধার করা হয়েছে। এ বি’ষয়ে হ’ত্যা মা’মলা দা’য়ের প্রক্রিয়াধীন।’পঞ্চগড়ের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ ইউসুফ আলী বলেন, ‘গ্রে’প্তার করা ব’খাটে কিশোর শি’শুটিকে অ’পহরণের পর ২০ হাজার টাকা মু’ক্তিপণ আদায় করতে চেয়েছিল।

উ’দ্দেশ্য ছিল মু’ক্তিপণের টাকা দিয়ে সে ভালো একটি মোবাইল ফোন কিনবে। শি’শুটি বেঁচে থাকলে ধরা পড়ে যাবে, এই ভ’য়ে কয়েকশ গজ দূরের এক বাড়ি থেকে দা এনে শি’শুকে গ’লা কে’টে হ’ত্যা করে। এরপর সে নিজ বাড়িতে ফিরে যায়।’

Facebook Comments
custom_html_banner1

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *