রাজারহাটে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে কুপিয়ে হত্যা; তিনজন গ্রেফতার

এজি লাভলু, স্টাফ রিপোর্টার

কুড়িগ্রামের রাজারহাটের উমর মজিদ ইউনিয়নের ফুলখাঁ চ্যাংপাড়া গ্রামে প্রতিপক্ষের ছুরিকাঘাতে আক্কাস হোসেন (২৮) নামের এক যুবক নিহত হয়েছে। নিহত আক্কাস হোসেন ঐ গ্রামের মৃত খতিব উদ্দীন (ধানু)’র পুত্র।

জানা যায়, গত বছরের মাহে রমজানের তারাবির নামাজ আদায়ের মুসল্লির ধার্যকৃত টাকা প্রদান সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে এবং পূর্ব জেরে শনিবার (১ আগস্ট) ঈদুল আযহার রাতে আক্কাসের মাথায় ধারালো দেশীয় আস্ত্র দিয়ে মাথায় কুপিয়ে আক্কাসকে এবং তার ভাগিনা সুমনের হাতে কুপিয়ে গুরুতর আহত করা হয়।

আহত অবস্থায় দু’জনকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক আক্কাসকে মৃত ঘোষণ করেন। নিহতের ভাগিনা সুমনের অবস্থাও আশঙ্কাজনক।

ঘটনার সময় ছয়মাস অন্তঃসত্ত্বা আক্কাসের স্ত্রী নাজনীন (২০) এগিয়ে আসলে পেটে লাথি মেরে তাকেও আহত করে দুর্বৃত্তরা। তার এবং গর্ভের সন্তানের অবস্থাও বর্তমানে আশঙ্কাজনক।

নিহতের মা মোছাঃ হালিমা বেগম পুত্র শোকে বারবার মূর্ছা যাচ্ছে। এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, নিহত আক্কাসের বড়ভাই ঐ দূর্বৃত্তদের হামলায় ইতিপূর্বে নিহত হয়েছিল। এ সময় দুর্বৃত্তরা ঘরে থাকা জমি বন্ধকের ১ লাখ টাকা নিয়ে পালিয়ে যায় এবং ঘরবাড়ি ভাংচুর করে।

নিহতের পরিবার ঘটনায় জড়িত সকলের সর্বোচ্চ শাস্তি ফাঁসি চেয়ে প্রধানমন্ত্রীর নিকট কান্না ভারাক্রান্ত হৃদয়ে আবেদন করেছে।

রাজারহাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ রাজু সরকার জানান, আমরা ইতিপূর্বে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। রাতেই থানায় মামলা হয়েছে। মামলা নং-১.০৮.২০২০। ইতিমধ্যে এজাহার নামীও তিনজন আসামীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বাকী আসামীদেরকে গ্রেফতারের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।

Facebook Comments
custom_html_banner1

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *