ল’কডাউন’ শিথিল করে দেশকে ভ’য়ঙ্কর অবস্থার দিকে নিয়ে যাচ্ছে স’রকার: মি’র্জা ফখরুল ই’সলাম।

ল’কডাউন’ শিথিল করে স’রকার দেশকে ‘ভ’য়ঙ্কর বি’পদজজ্জনক’ অবস্থার দিকে নিয়ে যাচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপি মহাস’চিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।ফখরুল বলেন, দোকান খুলে দেয়া হল, রেস্টুরেন্ট খুলে দেয়া হল- এটা সম্পূর্ণ সাংঘর্ষিক সোশ্যাল ডিস্টেন্সিংয়ের সঙ্গে।

এ’ভাবে চলতে থাকলে ক’রোনা মোকাবেলা দূরে থাক, সারা দেশ ভ’য়াবহ পরিণতির দিকে এগিয়ে যাবে।ক’রোনা পরীক্ষায় হাসপাতালের দীর্ঘ লাইনের কথা তুলে ধরে দেশের স্বাস্থ্যখাতের চ’রম অব্যবস্থাপনা ও স’রকারের ব্য’র্থতার ক’ঠোর সমালোচনা করেন বিএনপি মহাস’চিব।

ত্রা’ণ নিয়ে স’রকারি দলের লু’টপাটের ক’ঠোর সমালোচনা করে তিনি বলেন, আমরা বার বার আহ্বান করেছিলাম যে, ক’রোনার ভ’য়াবহ স’ঙ্কট থেকে মানুষকে বাঁচানোর জন্য সর্বদলীয় ঐক্যগঠন করে কাজ করার জন্য।

ত্রা’ণ চু’রি ও ভুয়া তালিকা প্রণয়ন সম্পর্কে ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ (টিআইবি) ও সিপিডির বক্তব্যের সঙ্গে একমত পোষণও করেন তিনি।বিএনপির ত্রাণ কার্য্ক্রম তুলে ধরে ফখরুল বলেন, আমাদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের প্রত্যক্ষ তত্ত্বাবধায়নে দলের ত্রাণ কাজ পরিচালিত হচ্ছে।

১৭ মে প’র্যন্ত সারা দেশে ৩১ লাখ ২৭ হাজার ৬৯৩টি পরিবারের মাঝে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করেছে বিএনপি ও তার অঙ্গ সংগঠনগুলো।এতে করে এক কোটি ২৫ লাখ ১০ হাজার ৭৭২ মানুষ কাছে এই সুবিধাটা পৌঁছাচ্ছে। এছাড়া ড্যাব ও জিয়াউর রহমান ফাউন্ডেশন যৌথভাবে প্রায় ৭৫টি বেস’রকারি মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রায় ২ হাজার পূর্ণাঙ্গ পিপিই সরবরাহ করেছে এবং অনলাইনে ড্যাব সদস্যরা দেশের সাধারণ মানুষের চিকিৎসা প্রদান করছেন।

সি’লেট কা’রাগারে একজন ব’ন্দি ক’রোনাভা’ইরাসে সং’ক্র’মণে মৃ’ত্যু ও বিভিন্ন কা’রাগারে আ’ক্রান্ত রো’গীদের চিকিৎসা নেয়ার কথা উল্লেখ করে অবিলম্বে রাজনৈতিক কারণে ব’ন্দিদের মুক্তি ও ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মা’মলা প্রত্যাহারের দাবিও জানান বিএনপি মহাস’চিব।

কৃ’ষকরা যাতে পণ্যের ন্যায্যমূল্য পায়, বিশেষ করে আমের মৌসুমে আম-লিচু চাষীদের পণ্য বিক্রির যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণের দাবিও জানান তিনি।

সং’বাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য ও ক’রোনা জাতীয় পর্যবেক্ষণ সেলের আহ্বায়ক ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকু, বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান অধ্যাপক এজেডএম জাহিদ হোসেন, তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক রিয়াজ উদ্দিন নসু, সহ-দফতর সম্পাদক তাইফুল ইসলাম টিপু ও চেয়ারপারসনের প্রেস উইংয়ের সদস্য শায়রুল কবির খান প্রমুখ।

Facebook Comments
custom_html_banner1

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *