[ শরীরে ব্লিচিং পাউডার মিশ্রিত পানির স্প্রে ] – না জেনে ক্ষতি করছি না তো??

ব্লিচিং পাউডার মিশ্রিত পানি অথবা এ ধরনের অন্য কোন ডিজইনফেক্টেন্ট দিয়ে শরীরে স্প্রে/ব্যবহার করায় COVID-19 থেকে কোন সূরক্ষাই দেয় না বরং তাতে উল্টো বিষক্রিয়ায় চর্ম এবং চোখের ক্ষতির কারন হতে পারে।

সূত্র :-—(বিশ্ব স্বাস্হ্য সংস্থা) এবং (স্বাস্থ্য অধিদপ্তর)

ব্লিচিং পাউডার কি এবং এর ব্যবহার কি?

•এর কেমিক্যাল নাম হলো
Calcium Hypochlorite বা Ca(ClO)2,
•এটার অন্য নাম হলো ব্লিচিং পাওডার বা ক্লোরিন পাওডার বা ক্লোরিনেটেড লাইম।
•এটা মূলত মেঝে, ড্রেইন, সিংক ইত্যাদি পরিস্কার করতে ব্যবহৃত হয়।
*ইন্ডাস্ট্রিতে কাপড়,কাগজের রং পরিবর্তনে ব্যবহৃত হয়।
*চুলের রং লাইট করতে ব্যবহার হয়।

•এটা দিয়ে COVID-19 ভাইরাস ধংসের কোন বৈজ্ঞানিক ভিত্তি এখনো প্রমানীত হয় নি।

তাহলে করোনা প্রতিরোধে করণীয় কি?

শরীরে ব্লিচিং পাউডার স্প্রে না করে আমরা যা করতে পারি—

•বাহির থেকে ঘরে ফিরে সাবান দিয়ে হাত পা বা সমস্ত শরীর ধৌত করতে পারি।
•প্রয়োজনে এলকোহল বেজড্ স্যানিটাইজার ব্যবহার করতে পারি।
•সাবান দিয়ে কাপড় চোপড় ধৌত করতে পারি।

সাবান ও এলকোহল বেজড্ স্যানিটাইজার কিভাবে করোনা প্রতিরোধে কাজ করে?

সাবান হলো এক ধরনের ক্ষার জাতিয় পদার্থ।
আর করোনা ভাইরাসের সারফেস প্রোটিনটা দুই লেয়ারের লিপিড/চর্বির এনভেলপ দিয়ে আবদ্ধ থাকে।
সাবান দিয়ে ২০ সেকেন্ড ভালোভাবে কোন কিছু ঘসে ধৌত করলে সেখানে করোনা ভাইরাস থাকলেও তার বাহিরের লিপিড/চর্বি জাতীয় আবরন নষ্ট হয়ে ভাইরাসটি ধংস হয়ে যায়।
•আর ঠিক একই ঘটনা এলকোহল বেজড্ সেনিটাইজারের ক্ষেত্রেও ঘটে থাকে। ৬০-৯৫% এলকোহল বেজড্ সেনিটাইজার ব্যবহারে করোনা ভাইরাস ধংস করতে সক্ষম।

আর সেজন্যই সাবান বা এলকোহল বেজড্ সেনিটাইজার দিয়ে ধৌত করতে উপদেশ দেয়া হয়।

[] করোনা প্রতিরোধে মূল কথা হলো:-
•জরুরী প্রয়োজন ছাড়া বাহিরে না যাওয়া।
•সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা।
•জরুরী প্রয়োজনে বাহিরে/কাজে গেলে মাস্ক/গগলস/পিপিই পড়া।
•বাইরের খোলা ও কাঁচা খাবার বিশেষ নিয়মে পরিস্কার/সিদ্ধ করে খাওয়া।
•বার বার সাবান/সেনিটাইজার দিয়ে হাত ধোয়া।
•লক্ষণ দেখা দিলে পরীক্ষা করা ও কোয়ারেন্টাইন/আইসোলেশনে থাকা।

[] মনে রাখবেন, যদিও COVID-19 এর মৃত্যুহার এখন পর্যন্ত নগন্যই বলা যায়, তবুও ভ্যাকসিন আবিষ্কৃত ও এভেইলেবল না হওয়া পর্যন্ত আমরা কেউই এই ছোঁয়াচে রোগ থেকে শতভাগ নিরাপদ নয়।
তাই এই মুহূর্তে সচেতনতার কোন বিকল্প নেই।

ডা:মাহফুজ আহমেদ রনক
জাতীয় নাক কান গলা ইনস্টিটিউট ,
ঢাকা, বাংলাদেশ।
১২-০৫-২০২০

Facebook Comments
custom_html_banner1

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *