স’কালে গ্রে’ফতার, দুপুরেই জা’মিন পেয়ে গেলেন শি’ক্ষক পে’টানো সেই চেয়ারম্যান।

কুমিল্লার দেবিদ্বারে বি’চারের নামে শিক্ষক ও না’রী-শি’শু পে’টানো সেই আলোচিত চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর আলমকে গ্রে’ফতার করেছে পুলিশ। রোববার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে উপজে’লা স’দরের নিউ মার্কেট এলাকা থেকে উপজে’লার রাজামেহার ইউনিয়ন পরিষদের ওই চেয়ারম্যানকে গ্রে’ফতার করা হয়।

প’রে দুপুর আড়াইটার দিকে তাকে কুমিল্লার সিনিয়র জু’ডিসিয়াল ম্যা’জিস্ট্রেট আ’দালতে হাজির করার পর আ’দালত তার জা’মিন মঞ্জুর করেন। এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন মা’মলার ত’দন্তকারী কর্মকর্তা ও দেবিদ্বার থানা পুলিশের এসআই মো. ইকতিয়ার।

অ’পর ঘটনায় একই ইউনিয়নের উখারি গ্রামের মো. ওয়ালিউল্লাহর শি’শু পুত্র শরীফ (১০) এবং স্ত্রী কাজল বেগমকে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে বি’চারের নামে মা’রধর করার ঘটনায় কাজল বেগম বা’দী হয়ে গত ১৯ এপ্রিল চেয়ারম্যান ও তার ভাতিজা শামীমের বি’রুদ্ধে থানায় পৃথক আরও একটি মা’মলা করেন। দুটি মা’মলায় প্রায় ৩ সপ্তাহ আত্মগো’পনে ছিলেন চেয়ারম্যান।

এ’দিকে চেয়ারম্যানের হাতে নি’র্যাতিত ও মা’মলার বা’দী মা’দরাসা শিক্ষক মাওলানা আজিজুর রহমান ক্ষো’ভের সাথে জানান, মা’মলার পর থেকে থানা পুলিশ চেয়ারম্যানকে আ’টকের কোনো চে’ষ্টাই করেনি। দুটি মা’মলার আ’সামি হয়েও তিনি (চেয়ারম্যান) পরিষদের কাজ চা’লিয়ে গেছেন।

আ’ত্মগো’পনে থাকা সেই চেয়ারম্যান রোববার সকালে থানার অদূরে নিউ মার্কেট এলাকায় এসে বসে থাকবে, পুলিশ এসে তাকে গ্রে’ফতার করলো, আ’দালতে নেয়া হলো, জা’মিন হয়ে গেল। সবই র’হস্যজনক। এসব লুকোচু’রির বি’ষয়ে ন্যায় বিচারের স্বার্থে তিনি কুমিল্লা পুলিশ সু’পার বরাবরে লিখিত অ’ভিযোগ করবেন বলে জানিয়েছেন।

Facebook Comments
custom_html_banner1

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *