সু’খবরঃ দে’শের বা’জারে আ’গামীকাল থে’কে পা’ওয়া যা’বে ক’রোনার কা’র্যকরী মে’ডিসিন….

ক’রোনাভাইরাস চি’কিৎসায় প্র’তিষেধক হিসেবে উৎপাদিত জে’নেরিক রে’মডেসিভির বি’ক্রি শুরু করতে যাচ্ছে দেশীয় ওষুধ প্র’স্তুতকারক কো’ম্পানি বে’ক্সিমকো ফা’র্মাসিউটিক্যালস লি’মিটেড।

বি’শ্বের প্র’থম কো’ম্পানি হিসেবে ‘বে’মসিভির’ নামে ওষুধটি বি’ক্রি শুরু করতে যাচ্ছে তারা।

বে’ক্সিম’কোর চিফ অপারেটিং অ’ফিসার (সিওও) রাব্বুর রেজা এক সা’ক্ষাৎকারে এ তথ্য জানিয়েছেন।

খ’বরটি দিয়েছে আ’ন্তর্জাতিক সং’বাদমাধ্যম ব্লু’মবার্গ।

বৃ’হস্পতিবার স্বা’স্থ্য ও প’রিবারকল্যাণ ম’ন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে বে’ক্সিমকো উৎ’পাদিত ও’ষুধের শু’ভ উ’দ্বোধন এবং হ’স্তান্তর উ’পলক্ষে আ’য়োজিত এক প্রে’স ব্রি’ফিংয়ে স্বা’স্থ্যম’ন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেন, বে’ক্সিমকো উৎ’পাদিত ওষুধ রে’মডেসিভির ক’রোনাভাইরাসে আ’ক্রান্ত মু’মূর্ষু রো’গীদের সু:স্থ করে তুলবে বলে আমরা আ’শাবাদী।

তিনি বলেন, বি’শ্বের কো’থাও কোনো দেশে করোনা রো’গীদের শ’তভাগ সু’স্থ করে তো:লার মতো ভ্যা’কসিন বা ও’ষুধ উৎ’পাদন হয়নি।

মা’র্কিন যু’ক্তরাষ্ট্রসহ বেশ কয়েকটি দেশে রে’মডেসিভির ও’ষুধটি কা’র্যকর হচ্ছে বলে প্র’মাণ পাওয়া গেছে।

জ’রুরিভিত্তিতে চি’কিৎসার জন্য এটির অ’নুমোদন দিয়েছে ওষুধ প্র:শাসন অধিদফতর।

ওষুধ বিশেষজ্ঞদের প’রামর্শে ক’রোনাভাইরাস রোগীদের এই ওষুধে চিকিৎসা প্রদান করা হবে।

ব্লু’মবার্গের প্র’তিবেদনে বলা হয়, এই জে’নেরিক (মূল/গোত্র) রে’মডেসিভিরের প্রতি ডো’জ বে’সরকারি হা’সপাতালগুলোতে ছ’য় হাজার টা’কা করে বি’ক্রি করা হবে।

তবে স’রকারি করোনা হা:সপাতালগুলোতে বি:নামূল্যে দেয়া হবে।

গু’রুতর অসুস্থ একজন রো’গীর ক্ষে’ত্রে এই রে’মডেসিভিরের ছয় ডো’জ লাগতে পারে।

বে’ক্সিমকোর চিফ অ’পারেটিং অ’ফিসার (সিওও) রা’ব্বুর রেজা বলেন, আ’মাদের সঙ্গে অ’ন্যান্য দেশও যোগাযোগ করছে। প্র’চলিত স’রবরাহ প:দ্ধতিতে এই ও’ষুধ আমরা দেবো না।

যদি কোনো দেশের স’রকার আ’মাদের কাছে এটি চায়, তবে আমরা এটি রফতানি করবো।

ক’রোনায় আ’ক্রান্ত রো’গীদের চি’কিৎসায় যু’ক্তরাষ্ট্রের গি’লিয়েড সা’য়েন্সেস কো’ম্পানির তৈরি রে’মডেসিভির সা’রাবিশ্বেই সাড়া ফেলেছে।

যু’ক্তরাষ্ট্রের ও’ষুধ প্র’শাসন (এফডিএ) মে মাসের শুরুতে ক’রোনার ও’ষুধ হিসেবে এটিকে ব্যবহারের অ’নুমোদন দেয়।

জা’পানের ও’ষুধ প্র’শাসনও ৭ মে থেকে ও’ষুধটি করোনা রোগীদের ওপর প্রয়োগের অনুমতি দেয়।

যদিও এ ওষুধের পা’র্শ্বপ্রতিক্রিয়া নিয়ে কিছুটা আ’লোচনাও আছে।

কিন্তু করোনা রো’গীদের চি’কিৎসায় এই রে’মডেসিভিরই এখন পর্যন্ত সবচেয়ে বেশি কার্যকারিতা দেখিয়ে চলেছে জানিয়ে গি’লিয়েড সা’য়েন্সেস বলছে, এই ওষুধ ব্যবহারে রো’গীদের অ’বস্থার উন্নতি হয়েছে।

মানুষের শি’রায় ইন’জেকশন হিসেবে এই ওষুধ প্র’য়োগ করতে হয়।

রোগের তীব্রতার ওপর এর ডোজ নির্ভর করে। গু’রুতর অ’সুস্থ রোগীদের জন্য ৫ অথবা ১০ দি’নের ডো’জ প্র’য়োজন হতে পারে।

রে’মডেসিভির উ’ৎপাদনের এ’কচেটিয়া স্ব’ত্ব রয়েছে গি’লিয়েডের।

তবে আ’ন্তর্জাতিক বা’ণিজ্য আ’ইন অ’নুযায়ী, জা’তিসংঘ স্বী’কৃত বাংলাদেশের মতো স্ব’ল্পোন্নত দে’শগুলো এ’সব পে’টেন্ট বা স্ব’ত্ব অ’গ্রাহ্য করতে পারে।

ফলে এ’সব দেশ স’হনীয় মূল্যে ও’ষুধ উ’ৎপাদন করতে পারে।

Facebook Comments
custom_html_banner1

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *