সু’খবর, আমেরিকায় ক’রোনার শতভাগ কার্যকর ও’ষুধ আবি’ষ্কার।

প্রা’ণঘা’তী ক’রোনাভা’ইরাসেের তা’ণ্ডবে বি’পর্যস্ত হয়ে পড়েছে গোটা বিশ্ব। এই ভাই’রাসের থাবায় অত্যন্ত শোচনীয় অবস্থা বিশ্বের সবচেয়ে ক্ষমতাধর রাষ্ট্র আমেরিকার।তবে এবার সুখবরও এল সেখান থেকেই। দেশটির ক্যালিফোর্নিয়ার একটি বায়োটেক সংস্থা ক’রোনাভা’ইরাসেের শতভাগ অ্যান্টিবডি আবি’ষ্কারের দাবি করেছে।

অ’বশ্যই, ক’রোনার অ্যান্টিবডি আবি’ষ্কার বিশ্বজুড়ে আ’তঙ্কের মধ্যে একটি আশার আলো।সান দিয়েগোতে অবস্থিত সোরেন্টো থেরাপিউটিক্স নামক ওই সংস্থা দাবি করেছে, পেট্রি ডিশ পরীক্ষায় তাদের আবি’ষ্কৃত এসটিআই-১৪৯৯ অ্যান্টিবডি সুস্থ মানব কোষে ক’রোনাভা’ইরাসেের প্রবেশ আ’টকে দিতে শতভাগ সফল হয়েছে।

এ’ই অ্যান্টিবডি নিয়ে প্রি-ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালের পর সোরেন্টো থেরোপিউটিকস পরবর্তী কার্যক্রমে এগোচ্ছে।নিউইয়র্কের এমটি সিনাই স্কুল অব মেডিসিনের সহযোগিতায় সোরেন্টো যে ড্রাগ ‘ককটেল’ তৈরির জন্য পরিকল্পনা করছে, এসটিআই-১৪৯৯ অ্যান্টিবডি তাদের মধ্যে অন্যতম।এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে সোরেন্টো জানিয়েছে, তারা মাসে ২ লাখ ডোজ পর্যন্ত অ্যান্টিবডি তৈরি করতে সক্ষম।

এ’ছাড়া সংস্থাটি ইউএস ফুড অ্যান্ড ড্রাগ অ্যাডমিনিস্ট্রেশন (এফডিএ) থেকে জরুরি অনুমোদনের জন্য আবেদন করেছে, তবে এখনও অনুমতি পায়নি।এদিকে সোরেন্টোর এই ঘোষণার পরই তাদের স্টকের মূল্য প্রায় ২২০ শতাংশ বেড়ে গিয়েছে।সোররেন্টোর প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ড. হেনরি জি ফক্স নিউজকে বলেছেন, “আমরা জো’র দিয়ে বলছি ক’রোনার প্রতিষেধক পাওয়া গেছে, এমন সমাধান যা শতভাগ কাজ কার্যকর।এসটিআই-১৪৯৯ নামক এই অ্যান্টিবডি যদি আপনার শরীরে দেওয়া হয়, তবে আপনার আর সামাজিক দূরত্বের দরকার নেই।

আ’পনি নির্ভয়ে সমাজে চলতে পারবেন।”ডা. হেনরি জি আরও বলেন, এসটিআই-১৪৯৯ অ্যান্টিবডি মানবদেহে থাকা ভাই’রাসটিকে চারপাশ থেকে ঘিরে ধরে এবং সেটিকে আ’টকে ফে’লে দেহ থেকে বিতাড়িত করে।যদিও মানবদেহে এখনও এই অ্যান্টিবডি পরীক্ষা করা হয়নি।

সু’তরাং এটি কীভাবে শরীরের অভ্যন্তরে আচরণ করবে এবং এর সম্ভাব্য পার্শ্ব প্রতিক্রিয়াগুলো সম্পূর্ণ অজানা।

Facebook Comments
custom_html_banner1

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *