1. ashrafali.sohankg@gmail.com : aasohan : Ashraf Ali Sohan
  2. kgnewssumon@gmail.com : arsumon :
শুক্রবার, ০৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৩:৫৩ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:-
জাতীয় স্লোগান হিসেবে ‘জয় বাংলা’ ব্যবহারের নির্দেশঃ হাইকোর্ট বন্দুকের নল ঠেকিয়ে ক্ষমতায় থাকা যাবে না- শায়েখে চরমোনাই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের পাশে অবৈধ ইটভাটা; ১ লক্ষ টাকা জরিমানা নিকলীর সিংপুরে ভায়া পরীক্ষা ও ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্প অনুষ্ঠিত পাকুন্দিয়ায় ১০ হাজার কম্বল নিয়ে শীতার্তদের পাশে ছমির-হালিমা ট্রাস্ট কিশোরগঞ্জ জেলা রিপোর্টার্স এসোসিয়েশনের ক্ষুদ্র প্রয়াস অস্ট্রেলিয়ায় পড়তে ইচ্ছুক শিক্ষার্থীদের নিয়ে উন্মুক্ত সেমিনার অনুষ্ঠিত কিশোরগঞ্জে পরিবেশ অধিদপ্তরের অভিযানে ইটভাটাকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা কিশোরগঞ্জে শব্দদূষণ নিয়ন্ত্রণে সচেতনতামূলক প্রশিক্ষণ শসৈনইমেক হাসপাতাল কিশোরগঞ্জে চালু হলো কিডনি ডায়ালাইসিস ইউনিট বিজয় দিবসে কুলিয়ারচর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে মুক্তিযোদ্ধা কেবিন ও প্যাথলজিক্যাল ল্যাব উদ্বোধন

নোয়াখালীতে চাঞ্চল্যকর স্কুল ছাত্র শাহীন হত্যা মামলায় তিন জনের যাবজ্জীবন কারাদন্ড!

রিপোর্টার:
  • সর্বশেষ আপডেট : বৃহস্পতিবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী, ২০২০
  • ১৯০ সংবাদটি দেখা হয়েছে

ফখরুদ্দিন মোবারক শাহ রিপন,স্টাফ রিপোর্টারঃ
নোয়াখালীর সেনবাগে ২০১৮ সালে নবম শ্রেণির ছাত্র আবু শাকের শাহিন হত্যা মামলায় তিন আসামির যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন জেলা ও দায়রা জজ আদালত। এ সময় এক নারী আসামিকে মামলা থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়।

বুধবার ২৬ ফেব্রুয়ারি বিকাল সাড়ে ৩টায় জেলা ও দায়রা জজ সালেহ উদ্দিন আহমদ শুনানি শেষে এ আদেশ দেন। দণ্ডপ্রাপ্তরা হলো-সেনবাগ উপজেলার পশ্চিম আহাম্মদপুর গ্রামের আব্দুল মোতালেব দুলাল, আব্দুল কুদ্দুছ মাখন ও মহসিন আলী ফারুক।

নিহত আবু শাকের শাহিন একই গ্রামের মোরশেদ আলমের ছেলে। সে কাবিলপুর হাজী মোকসুদুর রহমান মুসলিম উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির ছাত্র ছিল।

আদালত সূত্র জানায়, ২০১৮ সালের ৮ ফেব্রুয়ারি গভীর রাতে মোবাইলে ফোন করে বাড়ী থেকে ডেকে নিয়ে ধারালো অস্ত্র দিয়ে হত্যা করা হয় শাহিনকে। পরের দিন তার বাবা বাদী হয়ে ৭ জনকে আসামি করে সেনবাগ থানায় মামলা করেন। পুলিশ দীর্ঘ তদন্ত শেষে এজাহারভুক্ত চার জনকে অভিযুক্ত করে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন। পরে, আদালত মোট ১৭ জনের সাক্ষ্য গ্রহণ এবং দীর্ঘ শুনানি শেষে তিন আসামিকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের এ আদেশ দেন।

আদালতের রায়ে সন্তুষ্টি প্রকাশ করে নিহত শাহিনের বাবা ও মামলার বাদী মোরশেদ আলম বলেন, ‘নিম্ন আদালত যে সাজা দিয়েছেন তা যেন উচ্চ আদালতে বহাল থাকে।’

পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) গুলজার আহমেদ জুয়েল গনমাধ্যমকে জানান, আদেশকালে সাজাপ্রাপ্তদের মধ্যে আব্দুল কুদ্দুছ মাখন ও অব্যাহতিপ্রাপ্ত আসামি সেলিনা আক্তার মুক্তা আদালতে উপস্থিত ছিলেন। অপর আসামিরা এখনও পলাতক রয়েছেন।

Facebook Comments Box

খবরটি পছন্দ হলে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরও খবর