1. ashrafali.sohankg@gmail.com : aasohan : Ashraf Ali Sohan
  2. kgnewssumon@gmail.com : arsumon :
শুক্রবার, ০৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০২:৩২ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:-
জাতীয় স্লোগান হিসেবে ‘জয় বাংলা’ ব্যবহারের নির্দেশঃ হাইকোর্ট বন্দুকের নল ঠেকিয়ে ক্ষমতায় থাকা যাবে না- শায়েখে চরমোনাই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের পাশে অবৈধ ইটভাটা; ১ লক্ষ টাকা জরিমানা নিকলীর সিংপুরে ভায়া পরীক্ষা ও ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্প অনুষ্ঠিত পাকুন্দিয়ায় ১০ হাজার কম্বল নিয়ে শীতার্তদের পাশে ছমির-হালিমা ট্রাস্ট কিশোরগঞ্জ জেলা রিপোর্টার্স এসোসিয়েশনের ক্ষুদ্র প্রয়াস অস্ট্রেলিয়ায় পড়তে ইচ্ছুক শিক্ষার্থীদের নিয়ে উন্মুক্ত সেমিনার অনুষ্ঠিত কিশোরগঞ্জে পরিবেশ অধিদপ্তরের অভিযানে ইটভাটাকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা কিশোরগঞ্জে শব্দদূষণ নিয়ন্ত্রণে সচেতনতামূলক প্রশিক্ষণ শসৈনইমেক হাসপাতাল কিশোরগঞ্জে চালু হলো কিডনি ডায়ালাইসিস ইউনিট বিজয় দিবসে কুলিয়ারচর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে মুক্তিযোদ্ধা কেবিন ও প্যাথলজিক্যাল ল্যাব উদ্বোধন

আ’মি বি’শ্বাস ক’রি অ’স্ত্র নয়, আ’ল্লাহই শ’ক্তিশালী: শা’মীম ও’সমান

রিপোর্টার:
  • সর্বশেষ আপডেট : বুধবার, ২০ মে, ২০২০
  • ২৭০ সংবাদটি দেখা হয়েছে
????????????????????????????????? ????????????????????? ????????? ????????? ?????? : ??????????????? ???????????????

পুলিশের চেয়েও বেশি অ’স্ত্র নিজের কাছে থাকার কথা বলে আবার আলোচনায় এসেছেন নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সং’সদ সদস্য শামীম ওসমান।

তবে একদিন পরেই নারায়ণগঞ্জের এই আওয়ামী লীগ নেতা বলেন, আর কোনো অ’বৈধ অ’স্ত্র নেই তার কাছে। তিনি বলেন, আগে মনে করতাম অ’স্ত্রই শক্তিশালী, কিন্তু এখন বিশ্বাস করি পৃথিবীতে একমাত্র আল্লাহ শক্তিশালী৷

গত রবিবার (২ মার্চ) নারায়ণগঞ্জ পুলিশ লাইন মাঠে পুলিশ মেমোরিয়াল ডে’র আলোচনা সভা ও সম্মাননা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে শামীম ওসমান বলেন, ২০০১ সালের আগে জে’লা পুলিশ ফোর্সের কাছে যত অ’স্ত্র না ছিল, তার থেকে বেশি অ’স্ত্র একা আমার নিজের কাছেই ছিল।

সোমবার ওই বক্তব্যের বি’ষয়ে তিনি গণমাধ্যমকে বলেন, আমি যা বলেছি ঠিকই বলেছি। তবে সময়টি হবে ১৯৯১ সাল। তখন আমার বয়স ছিল ২২ বছর। আমি ভু’লে ২০০১ সাল বলে ফে’লেছি। আমার কাছে তো অ’স্ত্র ছিল।

আমরা গোলাগু’লি, ফাটাফাটি তো করেছি। এটা অস্বীকার করবো কিভাবে? শামীম ওসমান সেই অ’বৈধ অ’স্ত্র রাখার পক্ষে যুক্তি তুলে ধরে বলেন, ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্টের পর থেকে ১৯৯১ সাল পর্যন্ত আমরা অ’স্ত্র ব্যবহার করতে বা’ধ্য হয়েছি। কারণ, ওই সময়ে স্বাধীনতাবি’রোধী, যু’দ্ধাপরাধীরা এবং বঙ্গবন্ধুর হ’ত্যাকারীরা সক্রিয়ভাবে রাজনীতিতে অংশ নিয়েছে।

মিথ্যা কথা বলবো না, তখন আমরা অ’স্ত্র জোগাড় করতে বা’ধ্য হয়েছি। বঙ্গন্ধুকে মে’রে ফেলার পর আমরা মনে করেছিলাম প্র’তিশোধটা আমরা হ’ত্যার মাধ্যমে নেবো।

শামীম ওসমানের দাবি, ১৯৯১ সালে দেশে গণতান্ত্রিক ব্যবস্থা ফিরে আসার পর তার আর অ’স্ত্রের প্রয়োজন হয়নি। তাই জমা দিয়ে দেন। তিনি জানান, ওই সময় নারায়ণগঞ্জের এসপি ছিলেন মমিন উল্লাহ পাটোয়ারি। তখন তিনি ও তার সহযোগীরা পুলিশের কাছে লাইন ধরে, প্যাকেট ভরে সব অ’বৈধ অ’স্ত্র জমা দিয়েছেন।

Facebook Comments Box

খবরটি পছন্দ হলে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরও খবর