1. ashrafali.sohankg@gmail.com : aasohan : Ashraf Ali Sohan
  2. kgnewssumon@gmail.com : arsumon :
শুক্রবার, ০৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৩:০৩ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:-
জাতীয় স্লোগান হিসেবে ‘জয় বাংলা’ ব্যবহারের নির্দেশঃ হাইকোর্ট বন্দুকের নল ঠেকিয়ে ক্ষমতায় থাকা যাবে না- শায়েখে চরমোনাই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের পাশে অবৈধ ইটভাটা; ১ লক্ষ টাকা জরিমানা নিকলীর সিংপুরে ভায়া পরীক্ষা ও ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্প অনুষ্ঠিত পাকুন্দিয়ায় ১০ হাজার কম্বল নিয়ে শীতার্তদের পাশে ছমির-হালিমা ট্রাস্ট কিশোরগঞ্জ জেলা রিপোর্টার্স এসোসিয়েশনের ক্ষুদ্র প্রয়াস অস্ট্রেলিয়ায় পড়তে ইচ্ছুক শিক্ষার্থীদের নিয়ে উন্মুক্ত সেমিনার অনুষ্ঠিত কিশোরগঞ্জে পরিবেশ অধিদপ্তরের অভিযানে ইটভাটাকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা কিশোরগঞ্জে শব্দদূষণ নিয়ন্ত্রণে সচেতনতামূলক প্রশিক্ষণ শসৈনইমেক হাসপাতাল কিশোরগঞ্জে চালু হলো কিডনি ডায়ালাইসিস ইউনিট বিজয় দিবসে কুলিয়ারচর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে মুক্তিযোদ্ধা কেবিন ও প্যাথলজিক্যাল ল্যাব উদ্বোধন

কুড়িগ্রামে করোনায় আক্রান্তের পাশাপাশি বাড়ছে সুস্থতা

রিপোর্টার:
  • সর্বশেষ আপডেট : বুধবার, ২৭ মে, ২০২০
  • ২২৭ সংবাদটি দেখা হয়েছে

এজি লাভলু, স্টাফ রিপোর্টার

কুড়িগ্রাম জেলায় গত ১৩ এপ্রিল সোমবার প্রথম করোনা আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হলে জেলায় হইচই পড়ে যায়। নড়েচড়ে বসে জেলা স্বাস্থ্য বিভাগসহ প্রশাসনের কর্মকর্তা কর্মচারীরা।

করোনা সংক্রমণ রোধে গৃহীত হয় একের পর এক নানা পদক্ষেপ। অনেকেই সমাজ ও স্বজনের নিরাপত্তার কথা ভেবে স্বেচ্ছায় চলে যান হোম আইসোলেশনে। বহিরাগত ঠেকাতে প্রশাসনের তৎপরতার পাশাপাশি পাড়া-মহল্লায় গঠিত হয় স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন। সক্রিয় হয় ৯৯৯।

গত ১ মাস ১২ দিনে একে একে করোনায় আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ক্রমাগত বৃদ্ধি পেতে থাকলেও মৃত্যুর কোন ঘটনা ঘটেনি। তবে করোনা উপসর্গ নিয়ে ২জন শিশুসহ ৫ জনের মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে।

তথ্য সূত্রে, রাষ্ট্রীয় ব্যবস্থাপনায় গত ২৩ মে পর্যন্ত ১ হাজার ৪ শ ৬৬ জনের নমুনা রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রতিষ্ঠিত পলিমা’রেজ চেইন রিঅ্যাকশন (পিসিআর) ল্যাবে পরীক্ষা করে কোভিড-১৯ পজিটিভ হয় ৬৩ জন। এদের মধ্যে সম্মুখ যোদ্ধা ২ জন চিকিৎসক (এমবিবিএস) সহ স্বাস্থ্য বিভাগের ৯ জন, একজন পুলিশ কর্মকর্তা (ওসি) ও ২ জন নারী পুলিশ রয়েছে।

এখন পর্যন্ত করোনাভাইরাসে আক্রান্ত কুড়িগ্রাম সদর উপজেলায় ২৯ জন রোগীর মধ্যে সুস্থ হয়েছেন ১১ জন, চিলমারী উপজেলায় আক্রান্ত ৩ জনের মধ্যে বাড়িতে আইসোলেশনে থেকে সুস্থ হয়েছেন ২ জন, ফুলবাড়ী উপজেলায় ৭ জন আক্রান্তের মধ্যে সুস্থ হয়েছেন ২ জন, রৌমারী উপজেলায় আক্রান্ত ৩ জনের সকলেই সুস্থ হয়েছেন, নাগেশ্বরী উপজেলায় আক্রান্ত ৬ জনের মধ্যে সুস্থ হয়েছেন একজন, ভূরুঙ্গামারী উপজেলায় আক্রান্ত ৭ জনের মধ্যে সুস্থ হয়েছেন ৩ জন, উলিপুর উপজেলায় আক্রান্ত ৫ জনের মধ্যে সুস্থ হয়েছেন একজন এবং রাজারহাট উপজেলায় আক্রান্ত ৩ জনের সকলেই সুস্থসহ মোট সুস্থ হয়েছেন ২৬ জন।

এই পরিস্থিতিতে মুসলিম সম্প্রদায়ের বড় ধর্মীয় উৎসব উৎযাপিত হয়েছে নিরানন্দে। আর্থিক টানাপোড়েন ও করোনা সংক্রমণের ভয়ে কেনাকাটাসহ সংযমের বিষয়টি ছিল চোখে পরার মত। ঈদের নামাজ অনুষ্ঠিত হয়েছে মসজিদে, বাসাবাড়ির ছাদে নিরাপদ সামাজিক দুরত্ব বজায় রেখে।

Facebook Comments Box

খবরটি পছন্দ হলে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরও খবর