1. ashrafali.sohankg@gmail.com : aasohan : Ashraf Ali Sohan
  2. kgnewssumon@gmail.com : arsumon :
শুক্রবার, ০৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০২:২৩ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:-
জাতীয় স্লোগান হিসেবে ‘জয় বাংলা’ ব্যবহারের নির্দেশঃ হাইকোর্ট বন্দুকের নল ঠেকিয়ে ক্ষমতায় থাকা যাবে না- শায়েখে চরমোনাই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের পাশে অবৈধ ইটভাটা; ১ লক্ষ টাকা জরিমানা নিকলীর সিংপুরে ভায়া পরীক্ষা ও ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্প অনুষ্ঠিত পাকুন্দিয়ায় ১০ হাজার কম্বল নিয়ে শীতার্তদের পাশে ছমির-হালিমা ট্রাস্ট কিশোরগঞ্জ জেলা রিপোর্টার্স এসোসিয়েশনের ক্ষুদ্র প্রয়াস অস্ট্রেলিয়ায় পড়তে ইচ্ছুক শিক্ষার্থীদের নিয়ে উন্মুক্ত সেমিনার অনুষ্ঠিত কিশোরগঞ্জে পরিবেশ অধিদপ্তরের অভিযানে ইটভাটাকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা কিশোরগঞ্জে শব্দদূষণ নিয়ন্ত্রণে সচেতনতামূলক প্রশিক্ষণ শসৈনইমেক হাসপাতাল কিশোরগঞ্জে চালু হলো কিডনি ডায়ালাইসিস ইউনিট বিজয় দিবসে কুলিয়ারচর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে মুক্তিযোদ্ধা কেবিন ও প্যাথলজিক্যাল ল্যাব উদ্বোধন

মহাকাশ থেকে কাবার ছবি তুললেন ন’ভোচারী, মু’হূর্তেই ভাইরাল

রিপোর্টার:
  • সর্বশেষ আপডেট : বুধবার, ১৫ জুলাই, ২০২০
  • ৪০২ সংবাদটি দেখা হয়েছে

গত ২৫ সেপ্টেম্বর থেকে আ’ন্তর্জাতিক স্পেস স্টেশনে অবস্থান করছেন হাজজা আল মানসুরী যিনি সং’যুক্ত আরব আমিরাতের প্রথম নভোচারী। সেখান থেকে ম’ঙ্গলবার (০১ অক্টোবর) ইসলামের পবিত্রতম স্থান মসজিদ আল হারামের (কাবা) একটি ছবি ইন্সটাগ্রামে

 

শেয়ার করেছেন তিনি। এর আগে হাজজা আল মানসুরি তার এ মহাকাশ যাত্রায় সঙ্গে করে নিয়ে গিয়েছিলেন পবিত্র গ্রন্থ কুরআনের একটি কপি। ভূ-পৃষ্ট ‘হতে প্রায় ৩৫০ কিলোমিটার উচ্চতায় অবস্থান করে মহাকাশ স্টে’শন ‘হতে স্যাটেলাইটের মাধ্যমে তোলা মক্কার মসজিদ আল

 

 

হারামের এ ছবি মুহূর্তেই ব্যাপক সাড়া ফেলেছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। পবিত্র নগরী মক্কা ও কাবার প্রতি শ্র’দ্ধা নিবেদন করে হাজজা এই ছবিটির ক্যাপ’শনে লিখেছেন ‘এটি এমন একটি জায়গা যা সারা বিশ্বের প্রতিটি মুসলমানের হৃদয়ে বাস করে এবং তারা এটির দিকে মুখ করেই সালাত আ’দায় করে।’ উল্লেখ্য, আমিরাতের প্রথম সব মিলিয়ে ২৪০তম দ’র্শনার্থী নভোচারী হিসেবে হাজজা

 

 

আল মানসুরি মহাকাশে গেছেন। আর মহাকাশে নভোচারী পাঠানোর তালিকায় ১৯তম দেশ হিসেবে নাম লিখিয়েছে সংযুক্ত আরব আমিরাত, আরব দেশগু’লোর মধ্যে যা প্রথম। নিম্নে আরো পড়ুন: বর্তমানে মুসলিমর’া পৃথিবীতে সবচেয়ে বেশি সুখী : গবেষণা এই জার্মানির ম্যানহেইম বি’শ্ববিদ্যালয়ের একদল গবেষক ৬৭ হাজারের বেশি মানুষের ওপর জরিপ চালিয়ে এক নতুন তথ্য দিয়েছে। যে তথ্যে বলা হয়েছে, মুসলিমর’া আল্লাহর

 

 

একত্ববাদে বিশ্বা’স করায় এই পৃথিবীতে সবচেয়ে বেশি সুখী। যুক্তরাজ্যের সংবাদপত্র ডেইলি মেইলের এক প্রতিবেদন অনুসারে, সুখীদের এই তালিকায় মুসলিম’দের পরে আছে যথাক্রমে খ্রি’স্টান, বৌ’দ্ধ ও হিন্দুরা। অন্যদিকে নাস্তিকরা সবচেয়ে বেশি অসুখী। গবেষণাপত্রটি আমেরিকান সাই’কোলজিক্যাল অ্যাসোসিয়েশনের জার্নালে প্রকাশিত হয়। এতে বলা হয়, আল্লাহর

 

একত্ববাদে বিশ্বা’স মুসলিম’দেরকে প্রভাবিত করায় ‘হতাশা ও উদ্বেগ তাদেরকে খুব একটা গ্রাস করতে পারে না। মানুষের প্রতি মুসলিম’দের সহানুভূ’ত ি অনেক বেশি। এই কারণেই তাদের মধ্যে আ’ত্মহ’ত্যার প্রবণতা অনেক কম। জরিপ এবং অন্য গবেষকদের মতামতের ভিত্তিতে গবেষণাপত্রটি তৈরি করেন ম্যানহেইম বিশ্ব’বিদ্যালয়ের সাইকোলজিস্ট ড. লরা ম্যারি এডিনগার-স্কন্স। এই

 

গবেষকের মতে, গবেষণাটির ফলাফলে একটি বি’ষয় স্পষ্ট হয়েছে যে মানুষের সন্তু’ষ্টির স’ঙ্গে একত্ববাদের সরাসরি সম্পর্ক আছে। গবেষণাটির ফলাফল ধ’র্ম সংক্রা’ন্ত মন’স্তাত্ত্বিক জ্ঞানের ক্ষেত্রকে আরও প্রসারিত করেছে। তাদের মতে, এর মাধ্যমে শুধু বিভিন্ন ধ’র্মীয় গোষ্ঠীর একত্ববাদের বিশ্বা’সের গড় মাত্রা নয়, তাদের

 

সন্তুষ্টিতে ধ’র্মের প্রভাবের বি’ষয়টিও বেরিয়ে এসেছে। এই জার্মানির ম্যান’হেইম বিশ্ববিদ্যালয়ের একদল গবেষক ৬৭ হাজারের বেশি মানুষের ওপর জরিপ চালিয়ে এক নতুন তথ্য দিয়েছে। যে তথ্যে বলা হয়েছে, মুসলিমর’া আল্লাহর একত্ববাদে বিশ্বা’স করায় এই পৃথিবীতে সবচেয়ে বেশি সুখী। যুক্তরাজ্যের সংবাদপত্র ডেইলি মেইলের এক

 

প্রতিবেদন অনুসারে, সুখীদের এই তালিকায় মুসলিম’দের পরে আছে যথাক্রমে খ্রিস্টান, বৌ’দ্ধ ও হিন্দুরা। অন্যদিকে নাস্তিকরা সবচেয়ে বেশি অসুখী। গবেষণাপত্রটি আমেরিকান সাইকোলজিক্যাল অ্যাসোসিয়েশনের জার্নালে প্রকাশিত হয়। এতে বলা হয়, আল্লাহর একত্ববাদে বিশ্বা’স মুসলিম’দেরকে প্রভাবিত করায়

 

‘হতাশা ও উদ্বেগ তাদেরকে খুব একটা গ্রাস করতে পারে না। মানুষের প্রতি মুসলিম’দের সহানুভূ’ত ি অনেক বেশি। এই কারণেই তাদের মধ্যে আ’ত্মহ’ত্যার প্রবণতা অনেক কম। জরিপ এবং অন্য গবেষকদের মতামতের ভিত্তিতে গবেষণাপত্রটি তৈরি করেন ম্যানহেইম বিশ্ববিদ্যালয়ের সাইকোলজিস্ট ড. লরা ম্যারি এডিনগার-স্কন্স। এই

 

গবেষকের মতে, গবেষণাটির ফলাফলে একটি বি’ষয় স্পষ্ট হয়েছে যে মানুষের সন্তুষ্টির সঙ্গে একত্ববাদের সরাসরি সম্পর্ক আছে। গবেষণাটির ফলাফল ধ’র্ম সংক্রা’ন্ত মনস্তাত্ত্বিক জ্ঞানের ক্ষেত্রকে আরও প্রসারিত করেছে। তাদের মতে, এর মাধ্যমে শুধু বিভিন্ন ধ’র্মীয় গোষ্ঠীর একত্ববাদের বিশ্বাসের গড় মাত্রা নয়, তাদের সন্তু’ষ্টিতে ধর্মের প্রভাবের বি’ষয়টিও বেরিয়ে এসেছে।-তথ্যসূত্র: অনলাইন।

Facebook Comments Box

খবরটি পছন্দ হলে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরও খবর