1. ashrafali.sohankg@gmail.com : aasohan : Ashraf Ali Sohan
  2. arsumon@gmail.com : arsumon :
রবিবার, ২৯ জানুয়ারী ২০২৩, ০৬:০৮ অপরাহ্ন
শিরোনাম:-
জাতীয় স্লোগান হিসেবে ‘জয় বাংলা’ ব্যবহারের নির্দেশঃ হাইকোর্ট শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের পাশে অবৈধ ইটভাটা; ১ লক্ষ টাকা জরিমানা নিকলীর সিংপুরে ভায়া পরীক্ষা ও ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্প অনুষ্ঠিত পাকুন্দিয়ায় ১০ হাজার কম্বল নিয়ে শীতার্তদের পাশে ছমির-হালিমা ট্রাস্ট কিশোরগঞ্জ জেলা রিপোর্টার্স এসোসিয়েশনের ক্ষুদ্র প্রয়াস অস্ট্রেলিয়ায় পড়তে ইচ্ছুক শিক্ষার্থীদের নিয়ে উন্মুক্ত সেমিনার অনুষ্ঠিত কিশোরগঞ্জে পরিবেশ অধিদপ্তরের অভিযানে ইটভাটাকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা কিশোরগঞ্জে শব্দদূষণ নিয়ন্ত্রণে সচেতনতামূলক প্রশিক্ষণ শসৈনইমেক হাসপাতাল কিশোরগঞ্জে চালু হলো কিডনি ডায়ালাইসিস ইউনিট বিজয় দিবসে কুলিয়ারচর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে মুক্তিযোদ্ধা কেবিন ও প্যাথলজিক্যাল ল্যাব উদ্বোধন এনআরবিসি ব্যাংক উদ্যোক্তা সম্মাননা পেলেন আশরাফ আলী সোহান

আসরের নামাজে সিজদা দেওয়া অবস্থায় মা’রা গেলেন ইভান।

রিপোর্টার:
  • সর্বশেষ আপডেট : রবিবার, ২৩ আগস্ট, ২০২০
  • ২৬২ সংবাদটি দেখা হয়েছে

আসরের নামাজের দ্বিতীয় রাকাতে সিজদা দেওয়া অবস্থায় মা’রা গেলেন হোসনে মোবারক ইভান। গোঙ্গানির শব্দ শুনে না’মাজ দ্রুত শেষ করি। সালাম ফিরিয়ে দেখি ইভান মসজিদে লুটিয়ে পড়ে আছে। দ্রুত নেয়া হয় দাগনভূঞার একটি প্রাইভেট ক্লিনিকে।

ওরা না রেখে পা’ঠিয়ে দেয় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে। সেখানে কর্তব্যরত ডাক্তার জানায়, ইভান নেই। মৃ’তদেহ ফিরিয়ে আনা হয় দেবরামপুরে। পুরো গ্রাম ছেয়ে যায় শোকে।’দাগনভূঞার দেবরামপুর গ্রামের চাকলাদার বাড়ীর ইভানের (২২) মৃ’ত্যুর ঘটনাটি এভাবে বর্ণনা করেন মোহাম্মদ আলী জামে মসজিদের ইমাম মাওলানা শাফায়াত হোসেন।

তিনি বলেন, ‘শব্দ শুনে আমরা মনে করেছি, হয়ত বয়স্ক কেউ হ’ঠাৎ অ’সুস্থ হয়ে পড়েছেন। ইভানকে দেখে সবাই হতবিহবল হয়ে পড়েন।’ বৃহস্পতিবার আসরের নামাজে ইমামতি করেছিলেন মাওলানা শাফায়াত হোসেন।

তিনি জানান, বাড়ী থাকলে ইভান এই মসজিদে নিয়মিত নামাজ পড়তেন।মসজিদ পরিচালনা কমিটির কর্মকর্তা আবদুল কুদ্দুছ তার প্রতিক্রিয়া জানাতে গি’য়ে বাকরুদ্ধ হয়ে পড়েন। তার মতে, ‘এমন ভাল ছেলে এখন খুবই বিরল। ইভান শান্ত, ভদ্র ও ধার্মিক ছিল।

তার মৃ’ত্যুতে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে আসে।’শুক্রবার সকাল ১০টার জানাযা শেষে পারিবারিক ক’বরস্থানে বাবা আবুল হাসেমের কবরের পাশেই দা’ফন করা হয় ইভানকে। জানাযায় ইমামতি করেন তার মামা দেবরামপুর মৌলভী শামসুল হক দাখিল মাদরাসার সুপার মুফতি আনোয়ার হোসেন।

না’মাজ শেষে তিনি অ’জ্ঞান হয়ে পড়েন। দুই ভাইয়ের মধ্যে ইভান ছিল বড়। সে দাগনভূঞা সরকারী ইকবাল মেমোরিয়াল কলেজে বিবিএ ২য় বর্ষের ছাত্র ছিল।

খবরটি পছন্দ হলে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরও খবর